25 C
Kolkata
Thursday, December 1, 2022
বাড়িরাজনীতি"আপনিও চটিচাটা না হয়ে পারলেন না।" স্বস্তিকার পোস্টে কটাক্ষ অনুগামীদের

“আপনিও চটিচাটা না হয়ে পারলেন না।” স্বস্তিকার পোস্টে কটাক্ষ অনুগামীদের

গত দুই বছর করোনার জন্য কলকাতায় দুর্গাপুজো কার্নিভালের (Durga Puja Carnival) আয়োজন করা হয়নি। গত দুই বছর বন্ধ থাকার পর এই বছর পুনরায় রেড রোডে (Red Road) দুর্গাপুজো কার্নিভালের আয়োজন করা হয়েছিল। ইউনেসকোর তরফে স্বীকৃতি মেলার পর এই বছরের কার্নিভালকে ঘিরে বাড়তি উন্মাদনা চোখে পড়ার মতো ছিল। সেই বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে নেতা মন্ত্রী থেকে শুরু করে টলিপাড়ার বহু তারকা উপস্থিত ছিলেন। শনিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) সাথে ছোট পর্দা তথা বড় পর্দার তারকা স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়কে (Swastika Mukherjee) দেখা গিয়েছে।

এই বছর কার্নিভালে স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়কে প্রথম দেখা গেল

উপস্থিত ছিলেন জুন মালিয়া, অদিতি মুন্সি, রাজ চক্রবর্তী থেকে সায়ন্তিকা, তৃণা, ভাস্বর, সুভদ্রা, মরিজওয়ান রব্বানি শেখ, ঋত্বিকা সেন, ভরত কল, সৌমিতৃষা কুণ্ডু, অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলা। শনিবারের বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে উত্তর কলকাতা, দক্ষিণ কলকাতা এবং সল্টলেকের মোট ৯৫টি দুর্গাপুজো কমিটি শামিল হয়েছিলেন। উল্লেখ্য, এই বছর কার্নিভালে স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়কে প্রথম দেখা গেল। দমদম দক্ষিণপাড়া পুজো কমিটির প্রদর্শনে অভিনেত্রীকে দেখা যায়। তিনি মুখ্যমন্ত্রীর পাশে উপস্থিত না থাকলেও পুজো কমিটির প্রদর্শন থেকে ফেরার পথে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে যান।

এদিন স্বস্তিকা সোশ্যাল মিডিয়ায় এই অনুষ্ঠানের কিছু ছবি শেয়ার করেন। ছবির শিরোনামে অভিনেত্রী লেখেন, ‘আজ কার্নিভালে আমাদের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বহু বছর পর দেখা, উনি একটি চমৎকার অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে এবং কলকাতা পুলিসও খুব ভালো ভূমিকা পালন করেছে। সবসময়ই দিদির অদম্য প্রাণশক্তি এবং জলন্ত ব্যক্তিত্বে সঙ্গে সেখানে থাকাটা মজার ছিল। আসছে বছর আবার হবে।’ সেই ছবিতে দেখা গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী সামনে গিয়ে হাত জোড় করে তাঁর প্রতি সম্মান প্রদর্শন করতে দেখা যায় অভিনেত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও অভিনেত্রীর হাত ধরে কথা বলার ছবি দেখা যায়।

ফেসবুকে এই পোস্টটি করা মাত্রই শুরু হয়ে যায় তীব্র আক্রমণ। মুহূর্তের মধ্যেই শুরু হয়ে যায় কটাক্ষ। ভরে যায় কমেন্ট বক্স। তার অনুগামীদের মধ্যে একজন লিখেছেন, ‘আপনিও চটিচাটা না হয়ে পারলেন না। আমরা আপনাকে প্রতিবাদ মুখ ভাবতাম। সেই তেল মারতেই হল।’ অন্য আর একজন লিখেছেন, ‘আমি ভাবতাম অন্তত আপনার মধ্যে সাহস আছে সত্যিটা বলার, প্রতিবাদ করার। কিন্তু দেখছি আমার ভুল ধারণা ছিল সেটা। আপনারও অন্য তাররকাদের মতোই শিরদারাতে কোনও জোর নেই।’ এছাড়াও ‘চটিচাটা’, ‘মেরুদণ্ডহীন’, ‘লজ্জাবোধ নেই। চোরেদের নেত্রীর সঙ্গে বসছেন।’

স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় তার অনুগামীদের মধ্যে এক ব্যক্তির কটাক্ষের উত্তরে বলেন

বহু মানুষ এই ধরনের নানা মন্তব্য করেছেন। স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় তার অনুগামীদের মধ্যে এক ব্যক্তির কটাক্ষের উত্তরে বলেন, “বসিনি দাদা, শুভ বিজয়া বলে নমস্কার করে চলে এসেছি। মুখ্যমন্ত্রী বলে কথা, কতবছর পর দেখা হল, নমস্কারটুকু তো করব। আমি মানুষের পাশে যেভাবে থাকার ঠিকই থাকি, সবটা তো ফেসবুকে পোস্ট হয়না তাই জানতে পারেন না, আর জানানোরও প্রয়োজন বোধ করি না। তাই বলে এত বড় একটা উদযাপন সেখানে হাজার হাজার মানুষ গেছেন, আমার যাওয়াটা ভুল মানতে পারলাম না। আমাদের রাজ্যের অনেক মানুষ ওখানে গেছে ঠাকুর দেখতে। আমিও গেছি। সবকিছুর মধ্যে রাজনীতি ঢোকানোর দরকার নেই।

“আপনিও চটিচাটা না হয়ে পারলেন না।” স্বস্তিকার পোস্টে কটাক্ষ অনুগামীদের

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: