25 C
Kolkata
Sunday, September 25, 2022
বাড়িরাজ্যকলকাতা১৩৪ ওয়ার্ডে জিতেছে রাজ্যের শাসক দল

১৩৪ ওয়ার্ডে জিতেছে রাজ্যের শাসক দল

মহানগরের চারদিকে সবুজ আবীর, এবারের পুরসভা নির্বাচনে কলকাতায় কার্যত সবুজ ঝড়। ১৩৪ ওয়ার্ডে জিতেছে রাজ্যের শাসক দল। আসন সংখ্যার নিরিখে বিজেপি অবশ্য দ্বিতীয় স্থানেই রয়েছে। তাঁদের দখলে ৩ আসন। নির্দল প্রার্থীরাও জয়ী হয়েছেন তিন ওয়ার্ডে। আর দুটি করে আসন পেয়েছে বাম ও কংগ্রেস। কলকাতার বহু ওয়ার্ডেই বামেরা রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। পরিসংখ্যান বলছে, কলকাতার ৬৬ আসনে বামেরা রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। বিজেপি দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ৪৭ ওয়ার্ডে, কংগ্রেস দ্বিতীয় স্থানে ১৬ আসনে আর নির্দল প্রার্থীরা দ্বিতীয় স্থান পেয়েছেন পাঁচটি ওয়ার্ডে।

রাজনৈতিক মহলের একাংশ বলছে, বামেদের বাস্তবেই পুনরুত্থান ঘটছে।এবার তৃণমূল কংগ্রেস ১৩৪ পুর ওয়ার্ডে জয় ও এগিয়ে রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন ‘যে রায় মা মাটি মানুষ দিয়েছে তার পড়ে আমাদের আরও মাথা নত করে কাজ করতে হবে। বিজেপি অবশ্য এখনও সন্ত্রাসের অভিযোগই করে চলেছে।এদিকে বামেদের হয়ে ১০৩ নম্বর ওয়ার্ডে জিতেছেন নন্দিতা রায় । ৯২ নম্বর ওয়ার্ডে প্রায় ৩ হাজার ৪০৩ ভোটে জিতেছেন সিপিআই প্রার্থী মধুছন্দা দেব। তবে,২২ নম্বর ওয়ার্ডে এই নিয়ে টানা ৬ বার জিতলেন বিজেপির মীনাদেবী পুরোহিত।

২৩ নম্বর ওয়ার্ডে বিজয় ওঝার জয় এবং ৫০ নম্বর ওয়ার্ডে সজল ঘোষের জয়।কংগ্রেসের হয়ে ভরসা সেই ৪৫ নম্বর ওয়ার্ডের সন্তোষ পাঠক ও ১৩৭ নম্বর ওয়ার্ডের ওয়াসিম আনসারি। প্রসঙ্গত, কলকাতা পুরনিগমের নির্বাচনে ১৪৪টি ওয়ার্ডে প্রার্থীও দিতে পারেনি বিজেপি। বাস্তব বুঝেই রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী দলের প্রার্থীদের সামনে মাত্র ১০টি আসনে জেতার লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করে দিয়েছিলেন। কোনও নির্বাচনের আবহে দলের কোনও নেতা এত কম সংখ্যক আসন জেতার জন্য যে লক্ষ্যমাত্রা ধার্য্য করে দিতে পারেন, সেটাই আশ্চর্যের ঠেকেছিল রাজ্যের রাজনৈতিক মহলের কাছে।ফলাফলেও কার্যত তারই ছায়া পড়ল। মাত্র ৩টি ওয়ার্ডে জয়ী হয়েছে তাঁরা ।২০১৫ সালে ৭টি আসনে জয়ী হয়েছিল গেরুয়া শিবির। এবার তাঁরা কার্যত অর্ধেকে নেমে এসেছে।

১৩৪ ওয়ার্ডে জিতেছে রাজ্যের শাসক দল

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: