25 C
Kolkata
Thursday, December 1, 2022
বাড়িরাজনীতিমদের দোকান খুলবে রাজ্য সরকার, আয় বাড়াতে নতুন পন্থা

মদের দোকান খুলবে রাজ্য সরকার, আয় বাড়াতে নতুন পন্থা

সুরাপ্রেমীদের জন্য এক বিশেষ খবর। রাজ্যের তিন জেলায় মদের খুচরো দোকান (liquor store) খুলছে সরকার। হরিণঘাটার মাংস, বাংলার ডেয়ারির দুগ্ধজাত পণ্যের মতো এবার পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) জেলায় জেলায় মদ বিক্রির ফ্র্যাঞ্চাইজি দেবে রাজ্য সরকার। প্রাথমিকভাবে এই ধরনের মদের দোকান খোলার জন্য উত্তরবঙ্গের তিন জেলাকে বেছে নেওয়া হয়েছে। দার্জিলিং, কালিম্পং ও আলিপুরদুয়ার এই তিন জেলাকে চিহ্নিত করা হয়েছে। এই দোকান গুলিতে দেশে তৈরি হওয়া বিদেশি ব্র্যান্ডের মদ ও দেশি মদ মিলবে। উত্তরের ওই তিন জেলায় শুরু হচ্ছে মদের সরকারি রিটেল শপ।

ইতিমধ্যে রাজ্য সরকারের তরফে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, আয় বাড়িয়ে কোষাগার ভরতে রাজ্যের এই উদ্যোগ। নির্দিষ্ট অংকের অর্থের বিনিময়ে নবান্নের তরফে মদ বিক্রির ছাড়পত্র দেওয়া হচ্ছে। সূত্রের খবর, মদ বিক্রির ফ্র্যাঞ্চাইজি নিতে গেলে রাজ্যের আবগারি দপ্তরকে এককালীন টাকা দিতে হবে। কোনও ব্যক্তি যদি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় ফ্র্যাঞ্চাইজি নিতে চান তবে তাকে দিতে হবে ১ লক্ষ টাকা, আবার পুরসভা বা নোটিফায়েড এলাকার জন্য ফ্র্যাঞ্চাইজি নিতে ১.৫ লক্ষ টাকা ও পুরনিগমের জন্য ৪ লক্ষ টাকা দিতে হবে। চলতি বছরে ফ্র্যাঞ্চাইজি ফি বাবদ পঞ্চায়েত এলাকায় দিতে হবে ১৫ হাজার, পুরসভা এলাকায় ৩০ হাজার ও পুরনিগম এলাকায় দিতে হবে ৫০ হাজার টাকা।

এখনও পর্যন্ত লভ্যাংশের কত অংশ কে পাবে তা ঠিক হয়নি। লভ্যাংশের টাকা ঠিক করতে টেন্ডার ডাকা হচ্ছে। এই প্রসঙ্গে সিপিএম-এর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুজন চক্রবর্তী বলেন, “এই সরকার যখন দুয়ারে সরকার বলছিল, তখনই মানুষ প্রশ্ন করেন যে, দুয়ারে সরকার তো আসলে পঞ্চায়েত! আসলে দুয়ারে সরকার বলে দুয়ারে মদ পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করছে এই সরকার। মানুষ বুঝতে পারছেন যে, এই সরকার বাংলাকে ধ্বংস করছে।” অন্যদিকে রাজ্য বিজেপি-র সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বলেন, “রাজ্য সরকার মদ আর মা কালীতে টিকে আছে। তাই সরকার চাইছে মদ আরও বাড়াও আর বাড়াও। যুব সমাজকে ডুবিয়ে দাও। যাতে চাকরি না চায়।”

মদের দোকান খুলবে রাজ্য সরকার, আয় বাড়াতে নতুন পন্থা

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: