25 C
Kolkata
Sunday, September 25, 2022
বাড়িরাজনীতি"পুলিশই চেয়েছে গাড়িতে আগুন জ্বলুক" মন্তব্য দিলীপের

“পুলিশই চেয়েছে গাড়িতে আগুন জ্বলুক” মন্তব্য দিলীপের

মঙ্গলবার বিজেপির (BJP) নবান্ন অভিযানকে (Navanna campaign) কেন্দ্র করে কলকাতা এবং হাওড়ার বিস্তীর্ণ এলাকা রণক্ষেত্র আকার ধারণ করে। এদিন রাজ্যের একাধিক জায়গায় অশান্তির ছবি ধরা পড়েছে। কোথাও জলকামানের মাধ্যমে, তো কোথাও লাঠিচার্জ করে, আবার কোথাও কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটিয়ে বিজেপির নবান্ন অভিযান ভঙ্গ করার চেষ্টা করে পুলিশ। বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে অভিযাগ উঠেছে যে তারা পুলিশ কর্মীদের প্রবল মারধর করেছে। এই ঘটনার জেরে কমপক্ষে ৩০ জন পুলিস কর্মী আহত। কোথাও বিজেপি কর্মীরা পুলিশকে লাঠি হাতে তাড়া করেছে এই ছবিও দেখা গিয়েছে। পুলিসকে লক্ষ্য করে বিজেপি কর্মীরা ইট, বোতল নিয়ে ছুটে গিয়েছে। মঙ্গলবার বিজেপির নবান্ন অভিযানকে ঘিরে কলকাতা এবং হাওড়ার বিস্তীর্ণ এলাকা রণক্ষেত্র আকার ধারণ করে। এমজি রোডে পুলিশের গাড়িতে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এই ঘটনার পর থেকে তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি। বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ, মারমুখী বিজেপি কর্মীরাই সেই কর্মকাণ্ড ঘটিয়েছেন। সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিলেন রাজ্য বিজেপির বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। বুধবার সকালে প্রাতঃভ্রমণে বের হন দিলীপ ঘোষ। সেখান থেকেই তিনি একাধিক ইস্যুতে মুখ খোলেন। বুধবার নবান্ন অভিযানে বিজেপির তাণ্ডব, কলকাতায় পুলিশের গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “পুলিশই চেয়েছে গাড়িতে আগুন জ্বলুক। যেখানে গাড়িতে আগুন জ্বলল, সেখানে কোনও পুলিশ ছিল না কেন? গাড়িতে কোনও চালকও ছিল না। আর যদি পুলিশ দেখে থাকে বিজেপি করেছে, আটকানো হল না কেন? গ্রেপ্তার করা হল না কেন?” তিনি আরও বলেন যে, “রাস্তার পাশ দিয়ে হাজার-হাজার লোক হাতে পতাকা নিয়ে যাচ্ছেন। যাঁরা আগুন লাগাচ্ছেন তাঁরা তেল কোথা থেকে নিয়ে এলেন? পেট্রল কোথা থেকে পেলেন?

যখন গাড়ি জ্বলছিল কোথায় ছিল পুলিশ?

আসলে তাঁরাতো বাইরের লোক। সেটা পুলিশের দেখার দায়িত্ব ছিল। আর যখন গাড়ি জ্বলছিল কোথায় ছিল পুলিশ? যেখানে গাড়ি ছিল সেখানে পুলিশ ছিল না। যে লোকগুলো গাড়ি জ্বালাচ্ছিল পুলিশ তাঁদের ধরুক। কেন তাঁদেরকে না ধরে খবর করা হচ্ছে? এর পিছনে চক্রান্ত ছিল।” শুধুমাত্র দিলীপ ঘোষ নয় এই প্রসঙ্গে মন্তব্য করেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার (Sukant Majumder)। তিনি বলেন, ‘পুলিশের গাড়ি তৃণমূল জ্বালিয়েছে অথবা পুলিশ নিজেই জ্বালিয়েছে। বিজেপি শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করেছে।’ এই কথার উত্তরে তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেন, ‘সবাই দেখেছে কারা আগুন লাগিয়েছে।সবাই দেখেছে কারা অশান্তি করেছে। এখন ট্রেনি সভাপতি সুকান্ত আর টুইট মালব্য বলছেন তৃণমূল কর্মীরা করেছেন। এরা কি পাগল? আসলে এদের কোনও নীতি নেই, কোনও আদর্শ নেই, এদের সঙ্গে কোনও মানুষ নেই। আসলে পুলিশের সক্রিয়তায় বড় গন্ডগোল আজ এরা করতে পারেননি।’

“পুলিশই চেয়েছে গাড়িতে আগুন জ্বলুক” মন্তব্য দিলীপের

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: