25 C
Kolkata
Thursday, December 1, 2022
বাড়িরাজ্যজেলালোকাল ট্রেনে ছিনতাইকারীর পিছনে ধাওয়া করতে গিয়ে ব্যক্তির হাত কাটা গেল

লোকাল ট্রেনে ছিনতাইকারীর পিছনে ধাওয়া করতে গিয়ে ব্যক্তির হাত কাটা গেল

আবারও লোকাল ট্রেনে (Local Train) যাত্রী নিরাপত্তা নিয়ে উঠল প্রশ্ন। লোকাল ট্রেনে ব্যাগ ছিনতাইয়ের অভিযোগ। বর্ধমান স্টেশনে (Burdwan station) ডাউন বর্ধমান লোকালে এক মহিলার স্ত্রীর ব্যাগ ছিনতাই করে পালাচ্ছিল দুষ্কৃতী। সেই ব্যাগ ফিরে পাওয়ার জন্য চোরের পিছু ধাওয়া করেই হল কাল। ছিনতাইকারীর পিছনে ধাওয়া করতে গিয়ে ওই ব্যক্তির হাত কাটা গেল। রেল পুলিশ (Railway Police) সূত্রে খবর, আহত ব্যক্তির নাম তাপস মণ্ডল। তিনি হুগলির উত্তরপাড়া মাখলার বাসিন্দা। অজ্ঞান অবস্থায় বেশ কিছুক্ষণ তিনি রেললাইনের ধারে পড়েছিলেন তিনি। খবর পেয়ে রেল পুলিশের কর্মীরা এসে তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন৷ জানা গিয়েছে, ওই ব্যক্তির কাটা হাতটি জোড়া লাগানো যায়নি। এই ঘটনার জেরে রেল পুলিশের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ তুলেছেন আহত তাপস মণ্ডলের স্ত্রী৷

সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত এই ঘটনার জেরে লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি। আক্রান্ত তাপস মন্ডল জানিয়েছেন, গত ২৩ অক্টোবর তিনি সপরিবারে দার্জিলিং, গ্যাংটক বেড়িয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। ভোর ৪:৩০ নাগাদ বর্ধমান স্টেশনে নেমে তিনি ডাউন বর্ধমান লোকাল ধরেন। সেই সময় মগরা স্টেশন থেকে তাপসের স্ত্রীর ব্যাগ নিয়ে এক দুষ্কৃতী রেললাইনে ঝাঁপ দেয়। ব্যাগ ফিরে পাওয়ার আশায় ওই দুষ্কৃতির পিছু ধাওয়া করতে প্লাটফর্মে নেমে পড়েন তাপস। কিন্তু ভোর বেলায় ঘুম চোখে থাকার কারণে তিনি বুঝতে পারেননি ট্রেন ছেড়ে দিয়েছে। যার ফলে তিনি চলন্ত ট্রেন থেকে রেললাইনে পড়ে যান। এই ঘটনার জেরে তাঁর ডান হাত কেটে যায়। জ্ঞানহীন অবস্থায় ওই ব্যক্তি বেশ কিছুক্ষণ রেললাইনে পড়েছিলেন। এই ঘটনার খবর পেয়ে জিআরপির কর্মীরা এসে তাঁকে উদ্ধার করে মগরা হাসপাতালে ভর্তি করে।

সময়ে নিয়ে গেলে হয়তো আমার স্বামীর হাত জোড়া লাগানো যেত

পরে সেখান থেকে তাঁকে চুঁচুড়া ইমামবাড়া হাসপাতালে স্থানান্তরিত করানো হয়। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাপসকে এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। এই ঘটনার জেরে তাপসের স্ত্রী ইতালি দাস জানান, ‘‘রেলে নিরাপত্তার অভাবটা খুব বেশি৷ প্রতিদিন বর্ধমান থেকে ব্যান্ডেল পর্যন্ত সফরে ট্রেনে কোনও না কোনও ঘটনা ঘটেই চলেছে৷ রেল কর্তৃপক্ষ এর কোনও সমাধান করতে পারছে না! ঘটনা ঘটার বেশ কিছুক্ষণ পর রেল পুলিশ আসে এবং তারপরও তাঁর স্বামীকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে দেরি করেন তাঁরা৷ সময়ে নিয়ে গেলে হয়তো আমার স্বামীর হাত জোড়া লাগানো যেত৷’’ তিনি আরও জানান যে, ‘‘মগরা GRP থেকে বলা হয় স্বামী সুস্থ হলে যোগাযোগ করতে। তবে কথা থেকে বোঝা গিয়েছে তাঁরা অ্যাম্বুল্যান্স এবং চিকিৎসার খরচ দিয়ে বিষয়টি মিটিয়ে ফেলতে চাইছেন। লোকাল ট্রেনে রেলে যাত্রীদের নিরাপত্তার অভাব খুবই।’’

লোকাল ট্রেনে ছিনতাইকারীর পিছনে ধাওয়া করতে গিয়ে ব্যক্তির হাত কাটা গেল

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: