25 C
Kolkata
Monday, December 5, 2022
বাড়িদেশ বিদেশকারাগারে চালানো হবে 'মহা মৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র' যোগী সরকারের নয়া উদ্যোগ

কারাগারে চালানো হবে ‘মহা মৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র’ যোগী সরকারের নয়া উদ্যোগ

চলতি বছরেই উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন ছিল। সেখানে বিপুল ভোটে জিতে দ্বিতীয় বারের মতো উত্তরপ্রদেশের মসনদে বসেন যোগী আদিত্যনাথ। তিনি এরইমধ্যে উত্তরপ্রদেশের উন্নয়নের জন্য ইতিমধ্যেই একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। এবার একটি গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করা হয় যোগী সরকারের তরফ থেকে। এই ঘোষণাটি করা সংশোধনাগারে থাকা অপরাধীদের জন্য।ঘোষণায় বলা হয়েছে, এখন থেকে রাজ্যের প্রতিটি জেলে বাজানো হবে ‘মহামৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র’। শুধুতাই নয় এর সাথে শোনানো হবে ‘গায়ত্রী মন্ত্র’-ও। কিন্তু হঠাৎ কেন এই পরিকল্পনা? বলা হচ্ছে জেলের কয়েদিদের মানসিক শান্তির উন্নতি ঘটানোর জন্যই এমন সিদ্ধান্ত।

এরই মধ্যে রাজ্যের কারা দফরের তরফ থেকে জারি করা হয়েছে বিজ্ঞপ্তি। সেখানে এই ঘোষণার কথা জানানো হয়েছে যোগী সরকারের কারামন্ত্রী ধরমবির প্রজাপতির তরফ থেকে জেল কর্তৃপক্ষকে এই বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়েছে। বলা হচ্ছে, প্রতিদিন সকালে প্রার্থনার সময় এই দুই মন্ত্র বাজানো হবে। মনে করা হচ্ছে, এই দুই মন্ত্রপাঠ শুনলে কয়েদিদের আত্মিক শান্তির উন্নতি ঘটবে। এর পাশাপাশি তাদের যাবতীয় দুশ্চিন্তা দূর হবে। এবং সংশোধনাগারে শান্তি বজায় থাকবে। ধরমবির প্রজাপতি জানান, ভারতবাসীর ঈশ্বরের প্রতি অগাধ বিশ্বাস। মন্ত্র, প্রার্থনা এসব শোনার মাধ্যমে আশেপাশের পরিবেশ শান্ত থাকে।

যোগী সরকার জানিয়েছে এখন থেকে কারাগারে ‘মহামৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র’ ও ‘গায়ত্রী মন্ত্র‍‍` শোনানো হবে

এবং তারা মনে করে এই দুই মন্ত্র শোনানো হলে কয়েদিরা উপকৃত হবেন। যেই অপরাধ করে তারা সংশোধনাগারে এসেছে, তারা সেই ভুল বুঝতে পারবে এবং নিজের ভুল শুধরে পরবর্তীকালে ভালো মানুষ হয়ে চলবে। তাদের ভালো মানুষ করে তোলার উদ্দেশ্যেই যোগী সরকার এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। শাস্ত্র বিশেষজ্ঞরা মনে করেন ‘মহামৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র’ সকলের মনের যাবতীয় অশান্তি দূর করে। অন্যদিকে ‘গায়ত্রী মন্ত্র’ মনের অন্ধকার দূর করতে অনেকটাই কার্যকরী। গোটাদেশে সবথেকে বেশি সংখ্যক কয়েদি উত্তরপ্রদেশেই আছে। যোগী সরকার জানিয়েছে, এখন থেকে কারাগারে ‘মহামৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র’ ও ‘গায়ত্রী মন্ত্র‍‍` শোনানো হবে।

এরপর সংশোধনাগারের মধ্যে আধ্যাত্বিক কার্যকলাপের পরিমাণ আরও বাড়ানো হবে। শুধুতাই নয়, বন্দীদের এবং সংশোধনাগারের সামগ্রিক উন্নয়নের জন্য আরও বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে যোগী সরকার। এই জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে সংশোধনাগারের ভেতরে প্লাস্টিক বোতল ব্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। আবার বন্দিরা যাতে তাদের পরিবার পরিজনের সঙ্গে ভার্চুয়ালি দেখা করতে পারে তার জন্যও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। অনেকেই এই উদ্যোগে খুশি হয়েছেন। তবে নানান মহল থেকে নানা প্রশ্ন উঠে আসছে। কারন কারাগারে নান ধর্মের মানুষের উপস্থিতি আছে। তারা কিভাবে এটি নেবে তা নিয়েই প্রশ্ন উঠছে।

কারাগারে চালানো হবে ‘মহা মৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র’ যোগী সরকারের নয়া উদ্যোগ

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: