25 C
Kolkata
Friday, February 3, 2023
বাড়িরাজনীতিরামপুরহাটের ঘটনায় বিস্ফোরক মন্তব্য কুনাল ঘোষের, 'আমি নির্দোষ' বললেন আনারুল !

রামপুরহাটের ঘটনায় বিস্ফোরক মন্তব্য কুনাল ঘোষের, ‘আমি নির্দোষ’ বললেন আনারুল !

রামপুরহাট ঘটনায় আনারুল সমেত সব ধৃতকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে সিবিআই। ধৃতদের স্বাস্থ্যপরীক্ষার জন্য রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আনারুল হোসেন বলেন, তিনি ‘ষড়যন্ত্রের’ শিকার। আনারুলকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে পুলিশ ভ্যানে চাপানোর পরে মুখে গামছা জড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল। তখনই তিনি বলেন, ‘‘বিচার ব্যবস্থার উপরে আস্থা রয়েছে। আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হয়েছে। সিবিআইকে সহযোগিতা করব।’’ বগটুইয়ে আট জন খুন হওয়ার পর গ্রামবাসীদের একাংশ আনারুলের নামে অভিযোগ করেন। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে। বাড়িতে অগ্নিসংযোগ, খুন, খুনের চেষ্টা, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা, মারধর, লুটপাট-সহ নানা ধারায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে।

কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে বগটুই হত্যাকান্ডের তদন্তে নেমে পড়েছে সিবিআইয়ের তদন্তকারী দল। কিন্তু বগটুইয়ের তদন্তভার রাজ্য পুলিশের হাত থেকে সরে যাওয়ায়, খুব একটা সন্তুষ্ট নন রাজ্যের শাসক শিবির।শনিবার আবার একবার তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের কথায় এটি প্রকাশ পেল। শনিবার বিকেলে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, “আদালত সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে, তদন্তকারীরা গিয়েছেন। এটাই স্বাভাবিক। রাজ্য প্রশাসন সবরকম সাহায্য করছে। কিন্তু সিঙ্গুরের তাপস মালিক, নেতাই এর মত ঘটনায় মানুষ বিচার পায়নি। তবে যদি দেখি বিজেপিকে আড়াল করার চেষ্টা হচ্ছে। তৃণমূলকে উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে হেয় করার চেষ্টা হচ্ছে, তাহলে আমরা রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ করব।

রামপুরহাটে যে ঘটনা ঘটেছে বা অন্যান্য যে ঘটনা ঘটেছে সেখানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাঁড়িয়েছেন

আমরা দেখেছি, রামপুরহাটে যে ঘটনা ঘটেছে বা অন্যান্য যে ঘটনা ঘটেছে, সেখানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাঁড়িয়েছেন। কিন্তু বাম আমলে এত ঘটনা ঘটেছে, কোন সময় তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী গিয়েছেন? সেটা তাঁরা তুলে ধরুক।” তিনি বিজেপি ও কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই প্রসঙ্গ তুলে বলেন, “যেভাবে বিজেপি সিবিআই একসঙ্গে রামপুরহাটের ঘটনাস্থল যাচ্ছে, তাতে বোঝাই যাচ্ছে, বিজেপি এবং সিবিআই এক সূত্রে বাধা। যেভাবে ঘন ঘন বিজেপি যাচ্ছে, তা দেখে সেটাই মনে হচ্ছে। বৃহত্তর ষড়যন্ত্রকে আড়াল করার চেষ্টা করা হচ্ছে। সিবিআই বিজেপির উপর থেকে নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে। যদি আমরা দেখি উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমাদের নেতাকে ধরা হচ্ছে, বিজেপি নেতাদের আড়াল করা হচ্ছে, একটা নির্দিষ্ট প্রোপাগান্ডা অনুযায়ী চলছে তাহলে আমরা করা আন্দোলনে নামব।”

বগটুইয়ের হত্যাকান্ডের পর পরই রাজ্যের শাসক শিবিরের থেকে বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন তত্ত্ব তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়। কুণাল ঘোষ আরও বলেন, “রামপুরহাটে সিবিআইয়ের প্রয়োজন ছিল না। সিট সবরকম তদন্ত করছে। মুখ্যমন্ত্রী সবরকম ব্যবস্থা নিয়েছে। কিন্তু সিবিআই এখানে তদন্তভার নিয়েছে। তাই তদন্ত নিয়ে আমার কিছু বলছি না। কিন্তু সিবিআইয়ের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রীয় সংস্থার ভাল ভাল অফিসার হয়েছে। কিন্তু বিজেপির সম্পূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণ করছে। বিরোধী বিজেপির শুধু মৃতদেহ চাই। শকুনের রাজনীতি করে যাচ্ছে।”

রামপুরহাটের ঘটনায় বিস্ফোরক মন্তব্য কুনাল ঘোষের, ‘আমি নির্দোষ’ বললেন আনারুল !

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: