25 C
Kolkata
Sunday, September 25, 2022
বাড়িরাজনীতিকল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেরই দলের লোকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা

কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেরই দলের লোকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা

যত দিন যাচ্ছে ততই কোরণার গ্রাফ উর্ধমুখী হচ্ছে । তার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যাও । এই পরিস্থিতিতে রাজ্যে আগামী ২ মাস সব ধরনের জমায়েত বন্ধ রাখার কথা বলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্য়ায় । তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় এই ঘটনার সমালোচনা করেন । বিজেপি নেতা অমিত মালব্য এই বক্তব্যকে হাতিয়ার করে মাঠে নামেন ও তীব্র সমালোনা করেন ।অমিত মালব্য আজ এক টুইট করে লেখেন , কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেরই দলের লোকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন । তিনি কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন । সেই ভিডিওতে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন, “অভিষেকের মন্তব্য নিয়ে আমার যা বক্তব্য তা সংবাদমাধ্যমে এসে গেছে । ভোট যদি বন্ধই করতে হয় তাহলে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তো পার্টির জেনারেল সেক্রেটারি ।

সেখানে দাঁড়িয়েই কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্য়ায় এই বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেন।

উনি বলুন, ভারতের নির্বাচন কমিশন যে ৫ রাজ্য ভোট করাচ্ছে সেখানে উনি কেন প্রতিবাদ জানাননি ।মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার চালান। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলও চালান। তাঁকে দেখেই সব মানুষ ভোট দিয়েছে । আমিও ভোট পেয়েছি। তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের থেকে বেশি মানুষের মন কে বুঝবে । দলের নীতি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঠিক করেন। সরকারের নীতিও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঠিক করেন।” ওই ভিডিয়োর নীচেই মালব্য কমেন্ট করেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কি তাঁর উচ্চাকাঙ্খী ভাইপোর ডানা ছাঁটতে চান ?”কোরনা আক্রান্তের নিরিখে পশ্চিমবঙ্গ সবার উপরে আছে । এই পরিস্থিতিতে সবকিছু ২ মাসের জন্য বন্ধ রাখা উচিত বলে ব্যক্তিগতভাবে নিজের মতামত জানান অভিষেক বন্দ্য়োপাধ্যায়। তাঁর সেই বক্তব্যের পরেই রাজনৈতিক মহলে শোরগোল পড়ে যায়। করোনার সংক্রমণ মোকাবিলায় অভিষেকের ‘ডায়মন্ড হারবার মডেল’ সমস্ত মহলে প্রসংশিত হয় । সেখানে দাঁড়িয়েই কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্য়ায় এই বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেন।

কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,”দলের সাংগঠনিক জায়গায় যে যাকে খুশি বসাতে পারে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়া আমি কাউকে নেতা বলে মানি না ।” কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের এই বক্তব্যের পর তাকে অনেক নেতা পাল্টা নিশানা করেন ।অমিত মালব্যের টুইট নিয়ে তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেন, “বিধানসভা ভোটের আগে বড়বড় কথা বলে ভোটে গোহারা হারের পরেও এদের কোনো শিক্ষা হয়নি। অমিত মালব্যের আসল সমস্যা হল, বিজেপি তাসের ঘরের মতো ভেঙে যাচ্ছে । গতকাল বঙ্গ বিজেপিতে বিদ্রোহ হয়েছে। তথাগত রায়ের মতো নেতা বলছে নারী ও টাকার খেলায় বঙ্গ বিজেপি উঠে যাচ্ছে। অধিকাংশ পুরোন নেতা বলছেন অশুভ শক্তি এসে পার্টি দখল করছে। অমিত মালব্য আগে এগুলো নিয়ে টুইট করুন । নিজেদের কাদা ছোড়ছুড়ি, বিদ্রোহ থেকে দলকে আড়াল করেত তৃণমূলের ব্যাপারে তাকে নাক গলাতে হবে না। উনি নিজের চরকায় তেল দিন। কাল পোর্ট ট্রাস্টের গেস্টহাউসে কী হয়েছে তার উত্তর আগে উনি দিন ।”

কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেরই দলের লোকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: