25 C
Kolkata
Thursday, December 1, 2022
বাড়িদেশ বিদেশকালাজাদু করেও সুবিধা হলোনা, অনাস্থা প্রস্তাব পেশ হলো ইমরান খানের বিরুদ্ধে !

কালাজাদু করেও সুবিধা হলোনা, অনাস্থা প্রস্তাব পেশ হলো ইমরান খানের বিরুদ্ধে !

নানারকম চেষ্টা করা সত্ত্বেও চলতি সপ্তাহের সোমবারই পাকিস্তানের সংসদে ইমরান খানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করা হয়েছে। এই মাসের ৩১ তারিখেই ভাগ্য নির্ধারণ হবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের । বিরোধী দলের নেতারা যেকোনো প্রকারেই প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরাতে উদ্যত। এমনকি তার নিজের দলের একাধিক সদস্যও তাঁর উপরে আর ভরসা রাখতে পারছেন না । ফলে মনে করা হচ্ছে তারাও এই অনাস্থা প্রস্তাবে ইমরানের বিরুদ্ধে ভোট দিতে পারেন। গতকাল পাক প্রধানমন্ত্রী তাঁর দলের সদস্যদের নির্দেশ দেন যাতে তারা অনাস্থা প্রস্তাবে ভোটদান থেকে বিরত থাকেন।দরকার পরলে তারা অধিবেশনে যোগদানও এড়িয়ে যেতে পারেন। এমনি বার্তা শোনা গেল ইমরান খানের মুখে।

গত ২৫ তারিখ বিরোধীদের পাক প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সংসদে অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করার কথা ছিল। কিন্তু তেহরিক ই ইনসাফ দলের এক সাংসদের মৃত্যুর কারণে শোকজ্ঞাপন করে সোমবার বিকেল ৪টে অবধি অধিবেশন স্থগিত করে দেওয়া হয়। ইমরান খান ভেবেছিলেন, সেদিন হয়তো অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করা হবে না। কিন্তু সোমবার বিকেলেই প্রধানমন্ত্রীকে গদি থেকে সরাতে অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করা হয়। তারপরেই গতকাল ইমরান খান দলের সদস্যদের ভোটদান থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেন।পাক প্রধানমন্ত্রী পিটিআই-এর সদস্যদের উদ্দেশ্যে লেখা চিঠিতে বলেন , “জাতীয় সংসদের সকল সদস্যদের নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে তারা যেন অনাস্থা প্রস্তাবে ভোটদান থেকে বিরত থাকেন কিংবা ওইদিন সংসদের অধিবেশনে যোগদানই না করেন।”

ইমরান খান পাকিস্তানের তৃতীয় প্রধানমন্ত্রী যার বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনা হয়েছে

পাকিস্তান সংবিধানের ৬৩(এ) ধারার কথা মনে করিয়ে দিয়ে ইমরান খান বলেন, সকল সদস্যদেরই ওই চিঠির নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করতে হবে। কেউ এই নির্দেশ অমান্য করলে , তবে তা দলের বিরোধি কাজ হিসাবেই গণ্য হবে। ইমরান খান পাকিস্তানের তৃতীয় প্রধানমন্ত্রী, যার বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনা হয়েছে। কিন্তু পাকিস্তানের ইতিহাসে কোনও প্রধানমন্ত্রীকেই অনাস্থা প্রস্তাবের জেরে ক্ষমতাচ্যুত হতে হয়নি। ৩৪২ জন সদস্যদের সংসদে অনাস্থা প্রস্তাব থেকে রক্ষা পেতে ইমরান খানের প্রয়োজন ১৭২টি ভোট। কিন্তু সংসদে ইমরানের দলের সদস্য সংখ্যা ১৫৫।

২০১৮ সালে ক্ষমতায় আসার পর যেসমস্ত ছোট ছোট দলগুলির সঙ্গে জোট বাঁধেন ইমরান, তারাও মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন। কিন্তু তার চিন্তা বাড়িয়েছে তাঁর নিজের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের সদস্যরাই। জানা যাচ্ছে, তার নিজের দলের অনেক নেতাই তার বিরুদ্ধে ভোট দিতে পারেন। আগামীকাল পাক সাংসদের নিম্নকক্ষে এই অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হবে।  আগামী ৩ এপ্রিল চূড়ান্ত ভোটাভুটি হবে। বলা হচ্ছে, সম্প্রতি অনাস্থা প্রস্তাব থেকে বাঁচতে দলের নেতাদের বন্দি বানানো থেকে শুরু করে বাড়িতে কেজি কেজি মাংস পুড়িয়ে কালাজাদুর আশ্রয় নিয়েছেন ইমরান। কিন্তু এটা কতটা সত্যি তা বলা মুশকিল।

কালাজাদু করেও সুবিধা হলোনা, অনাস্থা প্রস্তাব পেশ হলো ইমরান খানের বিরুদ্ধে !

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: