25 C
Kolkata
Thursday, December 1, 2022
বাড়িদেশ বিদেশমহাকাশের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিল ইসরোর সবথেকে ভারী রকেট LVM3-M2

মহাকাশের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিল ইসরোর সবথেকে ভারী রকেট LVM3-M2

দীপাবলির আগে মহাকাশে পাড়ি দিল ইসরোর (ISRO) রকেট (Rocket)। মহাকাশ গবেষণায় (space research) ভারতের মুকুটে আরও একটি নতুন পালক জুড়ল। ৩৬টি স্যাটেলাইট সহ অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটার সতীশ ধাওয়ান স্পেস সেন্টার থেকে মহাকাশের উদ্দেশ্যে রওনা দিল। উল্লেখ্য, পূর্বে কখনো ইসরোর তরফ থেকে এত ভারী স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হয়নি। ৫ হাজার ৭৯৬ কেজির পে-লোডের সফল উড়ান উৎক্ষেপনের মাধ্যমে মহাকাশ গবেষণায় নতুন ইতিহাস তৈরি করল ভারত। এই প্রসঙ্গে ইসরোর চেয়ারম্যান জানিয়েছেন, “ইসরোর রকেট এলভিএম৩ একটি বেসরকারী যোগাযোগ সংস্থা ওয়ানওয়েবের ৩৬ টি উপগ্রহ বহন করবে।

লঞ্চের ২৪ ঘণ্টা কাউন্টডাউন শুরু হয়েছে। আগামী বছরের প্রথমার্ধে এলভিএম৩ আরও ৩৬টি ওয়ানওয়েব উপগ্রহ উৎক্ষেপণ করবে।” তিনি আরও জানিয়েছেন, LVM3-M2/OneWeb India-1-এর উপগ্রহের উৎক্ষেপণ সফল হয়েছে। ইতিমধ্যে লো আর্থ অরবিটে প্রতিস্থাপনের কাজও সম্পূর্ণ। উল্লেখ্য, রবিবার রাত ১২:০৭ মিনিট নাগাদ রকেটটি উৎক্ষেপণ করা হয়। রকেটির পেলোড ক্ষমতা ৩ এর ১০ টন ওজনের হলেও রকেটটি ৬ টন দিয়ে উৎক্ষেপণ করা হয়। জিএসএলভি এলভিএম৩-এর প্রথম বাণিজ্যিক উৎক্ষেপণ। প্রসঙ্গত, এলভিএম- ওয়ানওয়েব এবং নিউ স্পেস ইন্ডিয়া লিমিটেডের (NSIL) মধ্যে একটি চুক্তির মাধ্যমে এই মিশনটি লঞ্চ করা হল এদিন, শ্রীহরিকোটার সতীশ ধাওয়ান মহাকাশ কেন্দ্র থেকে জিওসিনক্রোনাস লঞ্চ ভেইকেলের (GSLV Mk-III) নতুন সংস্করণটি উৎক্ষেপণ করা হল।

উল্লেখ্য, আলোচ্য রকেটটির নাম LVM3-M2। এই রকেটটির দৈর্ঘ্য সাড়ে ৪৩ মিটার। রকেটটি ওজনে ৬৪৪ টন। এখনও পর্যন্ত এটি দেশের সবচেয়ে ভারী রকেট। এই রকেটটি জিওসিঙ্ক্রোনাস ট্রান্সফার অরবিটের মাধ্যমে চার টন ওজনের স্যাটেলাইট স্থাপন করতে সক্ষম। ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো এর আগেও বহুবার মহাকাশ অভিযানে সামিল হয়ে স্যাটেলাইট উৎক্ষেপন করেছে। ভারত এতদিন হালকা স্যাটেলাইট উৎক্ষেপন করলেও এবার সবচেয়ে ভারী রকেটে স্যাটেলাইট পাঠিয়ে আত্মনির্ভর ভারতের পথের দিকে এগিয়ে গেল।

মহাকাশের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিল ইসরোর সবথেকে ভারী রকেট LVM3-M2

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: