25 C
Kolkata
Sunday, September 25, 2022
বাড়িদেশ বিদেশঅনাস্থা ভোটে হেরে রাতেই প্রধানমন্ত্রী আবাসন ছাড়লেন ইমরান খান !

অনাস্থা ভোটে হেরে রাতেই প্রধানমন্ত্রী আবাসন ছাড়লেন ইমরান খান !

ইমরান খানের গদি যে সরতে চলেছে তা অনেকেই আন্দাজ করে নিয়েছিলেন। হাজার চেষ্টা করেও অনাস্থা প্রস্তাবের মুখোমুখি হতেই হয়েছে তাকে। গতকাল অর্থাৎ শনিবার অনাস্থা প্রস্তাবে হেরে ক্ষমতাচ্যূত হন ইমরান। এর আগে পাকিস্তানে কোনো প্রধানমন্ত্রীকে অনাস্থা প্রস্তাবে হেরে পদ ছাড়তে হয়নি। আস্থাভোটের মাধ্যমে অপসারিত প্রথম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পাকিস্তানের রাজনৈতিক ইতিহাসের সূচনা করে ফেললেন তিনি। ১৯৪৭ সাল থেকে স্বাধীনতার ৭৫ বছরে এই পর্যন্ত পাকিস্তানের কোনও প্রধানমন্ত্রীই নিজের কার্যকালের মেয়াদ সম্পূর্ণ করতে পারেননি। তবে আস্থাভোট করিয়ে কাউকে অপসারণ করার ঘটনা এযাবৎ কালে দেখা যায়নি। তাই আক্ষরিক অর্থেই ইতিহাস রচনা করলেন ইমরান।

হেরে যাওয়ার পরেই রাতেই তিনি ইসলামাবাদে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন ছেড়ে হেলিকপ্টারে করে ইসলামাবাদ ত্যাগ করেন। কিন্তু এই অপসারণ এত সহজ ছিলনা। শনিবার দিনভর নাটকীয় উত্থান-পতন দেখা গেছে। ইমরান খান, স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকারের গ্রেফতারের দাবি উঠছে। সরকার সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মানছে না-বলে আদালতে নালিশ জানাল পাকিস্তান বার অ্যাসোসিয়েশন। মধ্যরাতে আদালতে গেলেন পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি। পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্টের বাইরে মোতায়েন করা হল পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর জওয়ানদের। মধ্যরাতে পাকিস্তান নির্বাচন কমিশনের দফতর খোলা হলো। নেতা-মন্ত্রী-আমলারা যাতে দেশ ছেড়ে পালাতে না-পারেন, সেজন্য হাই অ্যালার্ট জারি করা হল পাকিস্তানের সব বিমানবন্দরে।

জাতীয় পরিষদের ৩৪২ জন সদস্যের মধ্যে ১৭৪ জন অনাস্থা প্রস্তাবে ভোটদান করেন

সমস্ত হাসপাতালে জারি করা হল জরুরি অবস্থা। পদত্যাগ করলেন পাকিস্তান জাতীয় সংসদের স্পিকার আসাদ কাইজার, ডেপুটি স্পিকার কাসিম সুরি। ইমরানের দল তেহরিক-ই-ইনসাফ এর সদস্যরা জাতীয় সংসদ ভবন ত্যাগ করলেন। ভোটাভুটি পরিচালনা করলেন নওয়াজ শরিফের পাকিস্তান মুসলিম লিগ দলের আইয়াজ সাদিক। জাতীয় পরিষদের ৩৪২ জন সদস্যের মধ্যে ১৭৪ জন অনাস্থা প্রস্তাবে ভোটদান করেন। ভোটাভুটির সময় ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে উপস্থিত ছিলেন না ইমরান। তাঁর দলের কোনও প্রতিনিধিকেও সেখানে দেখা যায়নি। তা নিয়েও ইমরানকে কটাক্ষ করেন পাকিস্তান পিপলস পার্টির প্রধান বিলাবল ভুট্টো।

তিনি বলেন, “প্রথম এমন অধিনায়ক দেখলাম ম্যাচ হারার ভয়ে যিনি উইকেট হাতে নিয়ে পিচ ছেড়ে পালালেন।” তিনি আরও বলেন, “পুরনো পাকিস্তানে আপনাদের সকলকে স্বাগত। গত তিন বছরে অনেক কিছু শিখেছি। স্বপ্ন দেখার অভ্যাস কখনও ছাড়বেন না। কোনও কিছুই অসম্ভব নয়।” ইমরানের অপসারণে দেশে গণতন্ত্র ফিরেছে বলে দাবি করেন বিরোধীরা। জানা যাচ্ছে, আস্থাভোটে পরাজিত হওয়ার পর সঙ্গে সঙ্গেই তিনি প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন ত্যাগ করেন ইমরান। তবে এরপর কোনো সংবাদমাধ্যম বা নেটমাধ্যমে সাধারণের মুখোমুখি হননি তিনি। এখন তাঁর ভবিষ্যৎ রাজনৈতিক জীবন নিয়েও জল্পনা চলছে।

অনাস্থা ভোটে হেরে রাতেই প্রধানমন্ত্রী আবাসন ছাড়লেন ইমরান খান !

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: