25 C
Kolkata
Monday, October 3, 2022
বাড়িদেশ বিদেশরাশিয়ার শর্ত না মানলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে!

রাশিয়ার শর্ত না মানলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে!

ধীরে ধীরে ইউক্রেন এবং রাশিয়ার যুদ্ধ বিরাট আকার নিচ্ছে ।প্রতিদিন ইউক্রেনের উপর আক্রমণ চালাচ্ছে রাশিয়া। এমন অমানবিক যুদ্ধে গোটা দুনিয়ার ঘুম উড়ে গেছে । কবে এই দ্বন্ধের শেষ হবে সেটা এখনো বোঝা যাচ্ছেনা । এখন প্রশ্ন এই যুদ্ধের কারণ কি? এর উত্তর কেউ জানেনা। কিন্তু এই যুদ্ধের পিছনে আছে বড় ইতিহাস। তবে এই পরিস্থিতির জন্য একা রাশিয়ার দোষ নেই । এই যুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরি করার পিছনে আমেরিকা সমেত বিশ্বের অন্যান্যও দেশও দায়ী ।তবে বলা হচ্ছে, এই সংঘাতের প্রধান কারণ NATO বাহিনীতে ইউক্রেনের অন্তর্ভুক্ত হবার দাবি। সবাই জানে NATO-র নেতা আমেরিকার সঙ্গে বরাবরই মস্কোর খারাপ সম্পর্ক। অতীতে অনেকবার রাশিয়ার বন্ধুদের উপর হামলা করতে দুইবার ভাবেনি আমেরিকার নেতৃত্বাধীন পশ্চিমী মিত্রশক্তি। তখন সেই সময় রাশিয়ার ওজর আপত্তি কোনদিন কানে নেওয়া হয়নি ।

এই সময় রাশিয়ার উপর বিধিনিষেধ আরোপ করলে তাতে ফল খারাপ ছাড়া ভালো হবে না

ইউক্রেনকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে মেনে নিতে আজও কষ্ট হয় পুতিনের । ফলে সহজেই সেই দেশের একাংশকে স্বাধীন ঘোষণা করে দিতে পারেন রুশ প্রেসিডেন্ট। এর থেকেই দুই দেশের সম্পর্ক স্পষ্ট ।এই পরিস্থিতিতে NATO-এ ইউক্রেনকে অন্তর্ভুক্ত করা হলে রাশিয়ার ঘুম উড়ে যাবে । অপরদিকে, রাশিয়ার মতো শক্তিশালী দেশের থেকে সুরক্ষিত থাকতে পশ্চিমী মিত্রশক্তির হাত ছাড়তে নারাজ ইউক্রেন । ফলে এই যুদ্ধ থামাতে আলোচনাই একটি পথ। কিন্তু সেটা এখন আরও কঠিন। কারণ, এখন যুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে । এই সময় রাশিয়ার উপর বিধিনিষেধ আরোপ করলে তাতে ফল খারাপ ছাড়া ভালো হবে না । উপরন্তু গোটা বিশ্বকে রাশিয়ার উদ্বেগের কারণ বুঝতে হবে। হতে পারে ইউক্রেনের NATO-য় অন্তর্ভুক্তি নিয়ে পুতিনের শর্ত সবাইকে মেনে নিতে হবে । এবং তারসাথে ইউক্রেনের স্বাধীনতা, নিরাপত্তা এবং সার্বভৌমত্ব নিশ্চিত করতে হবে ।

দুটির মধ্যে সামঞ্জস্য বজায় রাখা কঠিন হলেও অন্য কোনো উপায় আপাতত নেই।কিন্তু এখন ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরু হলে এই মুহূর্তে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হবে, সেটা ভাবার কোনো কারণ নেই । কারণ, ইউক্রেনের প্রতি NATO-র সহানুভূতি থাকলেও তারা এই মুহূর্তে রাশিয়ার বিপক্ষে যেতে নারাজ । বিশেষ করে জার্মানির এই যুদ্ধে আপত্তি আছে। এদিকে এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ শক্তি ভারতও যুদ্ধের পথে কখনই যাবে না। ফলে ইউক্রেনের এই যুদ্ধ তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের কারণ হবে, তা বলা অনুচিত । কিন্তু যুদ্ধের আশঙ্কা থাকলেও ,এত দ্রুত এমন যুদ্ধ লেগে যাবে তা কেউ কল্পনা করতে পারেনি । শুধু আমেরিকাই যুদ্ধ হবার দাবি করেছিল। এবং সেই দাবি একেবারেই সঠিক প্রমান হয়েছে । যুদ্ধ নিয়ে নিশ্চিত হলে ভারত অনেক আগেই দেশের নাগরিকদের ইউক্রেন থেকে ফিরিয়ে আনত। তবে রাশিয়ার এমন পদক্ষেপ গোটা বিশ্বের মাথা নাড়িয়ে দিয়েছে।

রাশিয়ার শর্ত না মানলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে!

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: