25 C
Kolkata
Friday, February 3, 2023
বাড়িদেশ বিদেশআজান চলাকালীন বাজানো যাবে না হনুমান চালিশা, মহারাষ্ট্রে নতুন নির্দেশিকা

আজান চলাকালীন বাজানো যাবে না হনুমান চালিশা, মহারাষ্ট্রে নতুন নির্দেশিকা

মহারাষ্ট্র সরকারের নতুন নির্দেশিকা আজান (Azaan) বনাম হনুমান চালিশা (Hanuman Chalisa) বিতর্কের মাঝে। নির্দেশিকা অনুযায়ী, আজান চলাকালীন লাউডস্পিকারে (Loudspeaker) বাজানো যাবে না হনুমান চালিশা। স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিল নাসিক প্রশাসন (Maharashtra Nashik Administration)। নাসিক প্রশাসনের নির্দেশ অনুসারে, কেবলমাত্র আজান চালকালীনই নয়, মসজিদে প্রার্থনার নির্দিষ্ট সময়ের ১৫ মিনিট আগে ও পরেও হনুমান চালিশা বাজানো যাবে না। প্রশাসনের মতানুসারে, এই নির্দেশিকা জারির কারণ স্থিতাবস্থা বজায় রাখা। নাসিক (Nasik) পুলিশ কমিশনার দীপক পাণ্ডে বলেন, ”লাউডস্পিকারে হনুমান চালিশা কিংবা ভজন বাজানোর জন্য আগে থেকে অনুমতি নিতে হবে। কিন্তু, আজানের ১৫ মিনিট আগে এবং ১৫ মিনিট পর এই অনুমতি দেওয়া হবে না।

মসজিদের ১০০ মিটারের মধ্যেও লাউডস্পিকারে হনুমান চালিশা বাজানো যাবে না।” উল্লেখ্য, দেশজুড়ে বিতর্ক চলছে আজানের সময় লাউডস্পিকারে হনুমান চালিশা বাজানো নিয়ে। ইতিমধ্যে মনে করা হচ্ছে নাসিক প্রশাসনের এই নির্দেশিকা নতুন করে বিতর্কের জন্ম দেবে। আগে দাবি উঠেছিল মহারাষ্ট্র এবং কর্নাটকে মাইক বাজিয়ে আজানের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার। বারাণসীর বাসিন্দা সুধীর সিং মাইকে আজান নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই নিজের বাড়ির ছাদে মাইক লাগিয়ে হনুমান চলিশা পাঠ করা শুরু করেছেন। সুধীরবাবু দাবি করেন তিনি একজন BJP কর্মী। একইসঙ্গে আরও কয়েকজন যুবকও তাঁকে অনুসরণ করে মাইক লাগিয়ে হনুমান চলিশা পাঠ করেন। সেই ঘটনার ছবি ও ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। সূত্রের দাবি, ঠিক যে সময় স্থানীয় মসজিদে আজান শুরু হয়, সুধীর ও তাঁর অনুগামীরা সেই সময় ছাদে উঠে হনুমান চলিশা পাঠ করেন।

মসজিদে লাউডস্পিকার বাজানোকে সমর্থন করতে পারেন না

প্রসঙ্গত, রাজ ঠাকরে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন অবিলম্বে মহারাষ্ট্রের সমস্ত মসজিদ থেকে লাউডস্পিকার খুলে ফেলতে হবে। সেই কথা না মানলে তাঁর দলের কর্মীরা সেই সকল মসজিদের সামনে গিয়ে হনুমান চালিশা পড়বেন। সেই ঘটনার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই লাউডস্পিকারে বাজল হনুমান চালিশা। এই ঘটনাটি মুম্বইয়ের ঘাটকোপরে ঘটেছে। মহারাষ্ট্রে নব নির্মিত সেনার (MNS) দফতরে হনুমান চলিশা বাজতে শোনা যায়। রাজ জানান যে, তিনি কোনও ধর্মের বিরোধী নন। কিন্তু, তিনি এইভাবে মসজিদে লাউডস্পিকার বাজানোকে সমর্থন করতে পারেন না। তাই রাজ ঠাকরে রাজ্য়ের সরকারের কাছে হুঁশিয়ারি দেন অবিলম্বে এইসব মসজিদ থেকে লাউডস্পিকার সরানোর। একইসঙ্গে, রাজ সওয়াল করেন মুম্বইয়ের মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় অবস্থিত মাদ্রাসাগুলিতে তল্লাশি অভিযান চালানোর পক্ষে। তিনি দাবি করেন ইস্যুতে সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপের।

আজান চলাকালীন বাজানো যাবে না হনুমান চালিশা, মহারাষ্ট্রে নতুন নির্দেশিকা

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: