25 C
Kolkata
Tuesday, November 29, 2022
বাড়িদেশ বিদেশজয়পুর ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট থেকে উদ্ধার হলো ২০ লক্ষ টাকার সোনা !

জয়পুর ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট থেকে উদ্ধার হলো ২০ লক্ষ টাকার সোনা !

অবৈধ সোনা পাচারের অভিযোগে জয়পুর ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে থেকে গ্রেফতার করা হয় এক বিমানযাত্রীকে। জানা যাচ্ছে, সেই ব্যক্তি জুতোর মধ্যে সোনা লুকিয়ে পাচার করছিলেন। তাঁর কাছ থেকে প্রায় ৩৬৯.৯০ গ্রাম সোনা উদ্ধার করা হয়েছে। যার বাজারমূল্য বর্তমনে প্রায় ১৯ লাখ ৪৫ হাজার টাকা। ওই ব্যক্তি কোনও আন্তর্জাতিক সোনাপাচার চক্রের সঙ্গে যুক্ত কিনা তাও খতিয়ে দেখছেন শুল্ক দফতরের আধিকারিকরা। সোনা পাচারের এই ঘটনাটি ঘটেছে গতশুক্রবার। সেই ব্যক্তি সোনা নিয়ে ভারতে ঢুকেছিলেন। সূত্রের দাবি, নিজের জুতোর মধ্যে সোনা লুকিয়ে রেখেছিলেন ওই ব্যক্তি। তিনি দুবাই থেকে জয়পুরে পৌঁছান। বিমানবন্দর সূত্রে বলা হচ্ছে, তাদের আধিকারিক বা নিরাপত্তারক্ষীদের কাছে এই বিষয়ে আগাম কোনও খবর ছিল না।সন্দেহ হয় এয়ারপোর্ট নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কর্মী ও আধিকারিকদের

তবে দুবাই থেকে আসা ওই ব্যক্তির আচরণ খুব একটা ভালো লাগছিলোনা তাদের । আর সেটি দেখেই সন্দেহ হয় এয়ারপোর্ট নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কর্মী ও আধিকারিকদের। তারা দেখেন দুবাই থেকে আসা ওই বিমানযাত্রীকে নিতে আরও এক ব্যক্তি বিমানবন্দরের বাইরে অপেক্ষা করছেন। তাঁর সাথে দেখা হতেই ওই বিমানযাত্রীর সঙ্গে থাকা সমস্ত জিনিসপত্র তার হাতে তুলে দেন। এমনকি নিজের পায়ে থাকা জুতো জোড়াও খুলে দেন ওই ব্যক্তিকে এতেই নিরাপত্তাকর্মীদের সন্দেহ শুরু হয়। তারপর নিরাপত্তাকর্মীরা সন্দেহভাজনদের কাছে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাঁরা পালানোর চেষ্টা করে। তবে তাতেও কোনো হয়নি। বেশ কিছুক্ষণ পরেই ওই ব্যক্তিকে ধরে ফেলেন নিরাপত্তাকর্মীরা।

সেই ক্যাপসুলের ভিতর চকচকে সোনালী রঙের কিছু পেস্ট দেখতে পান এয়ারপোর্ট নিরাপত্তারক্ষীরা

ওই ব্যক্তিকে তল্লাশি করে তাঁর জুতোর ভিতর থেকে একটি প্লাস্টিকে প্যাকেট উদ্ধার হয়। সেই প্যাকেটের ভিতর পলিথিনের কতগুলি ক্যাপসুল ছিল। সেই ক্যাপসুলের ভিতর চকচকে সোনালী রঙের কিছু পেস্ট দেখতে পান এয়ারপোর্ট নিরাপত্তারক্ষীরা। পরে জানা যায় সেগুলি খাঁটি সোনা। বিমান বন্দরের এক আধিকারিক জানান, উদ্ধার হওয়া সোনার পরিমাণ প্রায় ৩৬৯.৯০ গ্রাম। এই সোনা ৯৯.৫০ শতাংশ খাঁটি। তাই এর বাজারমূল্য অনেক বেশি। ১৯ লাখ ৪৫ হাজার টাকার সেই সোনা। ওই বিমানযাত্রীর বিরুদ্ধে ১৯৬২ সালের শুল্ক আইনের নির্দিষ্ট ধারা অনুসারে মামলা রুজু করা হয়েছে। শুল্ক দফতর এই ঘটনার তদন্ত করছে। ওই ব্যক্তি কোনও আন্তর্জাতিক সোনাপাচার চক্রের সঙ্গে যুক্ত কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তাকে কে এই সোনা দিয়েছে এবং কাকে দেওয়ার জন্য দিয়েছে সমস্ত বিষয় দেখছে শুল্ক দফতর।

জয়পুর ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট থেকে উদ্ধার হলো ২০ লক্ষ টাকার সোনা !

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: