25 C
Kolkata
Friday, February 3, 2023
বাড়িরাজ্যজেলাচিরাচলিত প্রথা ভেঙে ছেলের বউয়ের বিয়ে দিলেন শ্বশুর

চিরাচলিত প্রথা ভেঙে ছেলের বউয়ের বিয়ে দিলেন শ্বশুর

চিরাচলিত প্রথা ভেঙে নিজের ছেলের বউয়ের বিয়ে (marriage) দিলেন শ্বশুর। এক বছর আগে একমাত্র ছেলের অকালে মৃত্যু হয়েছে। সাপের কামড়ে মারা যান তিনি। ছোট মেয়েকে নিয়ে সংসার সামলায় বৌমা। ছেলে মারা যাওয়ার পর থেকে বৌমা এবং নাতনির যাবতীয় দায়িত্ব নিয়েছিলেন কিশোর চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু বৌমার সারা জীবনের কথা ভেবে তাকে পাত্রস্থ করলেন বৃদ্ধ কিশোর চট্টোপাধ্যায়। এই ঘটনাটি পশ্চিম বর্ধমানের (West Burdwan) জামুড়িয়ায় ঘটেছে। বৃহস্পতিবার আসানসোলের কালীপাহাড়ির ঘাঘরবুড়ি মন্দিরে নিজের বিধবা বৌমার বিয়ে দিলেন শ্বশুর।

জামুড়িয়ার চিঁচুড়িয়া এলাকার বাসিন্দা পূজা চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে প্রভাত ফৌজদারের সঙ্গে বিবাহ দিলেন কিশোর চট্টোপাধ্যায়। জানা গিয়েছে, ২০১৭ সালে কিশোর চট্টোপাধ্যায়ের ছেলে ইন্দ্রজিতের বিয়ে হয়েছিল। কিন্তু বিয়ের ২ বছরের মধ্যে সাপের কামড়ে মারা যান ইন্দ্রজিৎ। তারপর থেকেই একমাত্র কন্যাসন্তানকে নিয়ে শ্বশুরবাড়িতেই থাকতেন পূজা। কিন্তু পুত্রবধূ এবং নাতনির ভবিষ্যতের কথা ভেবে পূজার পুনরায় বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন কিশোর বাবু। তারপর থেকে তিনি পাত্র দেখা শুরু করেন। শেষে পর্যন্ত ছেলেরই ছোটবেলার বন্ধুকে পাত্র হিসাবে পেলেন তিনি। সম্বন্ধ নিয়ে তিনি নিজেই প্রভাত ফৌজদারের বাড়িতে হাজির হন।

তার প্রস্তাব মেনে নিয়ে প্রভাতের পরিবারের লোক এবং পূজার পরিবারের উপস্থিতিতে শুক্রবার বিয়ে হয় তাদের। দাঁড়িয়ে থেকে বিয়ের সম্পূর্ণ কাজ সম্পন্ন করেন শ্বশুর। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘আমার একমাত্র ছেলে ছিল ইন্দ্রজিৎ। সাপের কামড়ে ওর মৃত্যুর পর পুত্রবধূকে কন্যাস্নেহে লালনপালন করেছি। পরে আমি স্থির করলাম ওর বিয়ে দেব। আমাদের আর ক’দিন। বৌমা যাতে ভাল থাকে তার জন্য ওর জন্য পাত্র দেখা শুরু করি।’’ একইসঙ্গে পাত্র প্রভাত বলেন, ‘‘আমার কাছে এই প্রস্তাব আসার সঙ্গে সঙ্গে বিয়েতে রাজি হই। আসলে যাকে বিয়ে করছি, সে আমার বন্ধুরই বৌ। আমি বন্ধুর সন্তানের দায়িত্ব নেব। ভাল রাখব দু’জনকে।’’ প্রসঙ্গত, এদিন সকলেই কিশোর বাবু এবং পাত্র প্রভাতের প্রশংসা করেন।

চিরাচলিত প্রথা ভেঙে ছেলের বউয়ের বিয়ে দিলেন শ্বশুর

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: