25 C
Kolkata
Sunday, September 25, 2022
বাড়িদেশ বিদেশকোরনা আবহে UPSC পরীক্ষা না দিতে পেরে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ পরিক্ষার্থীরা

কোরনা আবহে UPSC পরীক্ষা না দিতে পেরে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ পরিক্ষার্থীরা

কোরনা আবহে ২০২১ সালে অনেক পরিক্ষার্থী UPSC সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় বসতে পারেনি। ফলে আবারও পরীক্ষার দাবি জানিয়ে দেশের শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হলেন কিছু পড়ুয়া। তারপর বিষয়টি আদালতের নজরে আসার পর বিচারপতি এএম খানউইলকর ও বিচারপতি সিটি রবিকুমারের ডিভিশন বেঞ্চ সিদ্ধান্ত নেন আগামী ২১ মার্চ পরবর্তী শুনানির হবে। জানা যাচ্ছে, UPSC এর পক্ষের উকিল এই বিষয়টি নিয়ে সময় চাওয়ার কারণেই এই শুনানি পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে।সূত্রের দ্বারা খবর , কোরনা আবহে কোনোভাবে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ না পাওয়ায় একটি বাড়তি অ্যাটেম্পট চেয়ে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হন পড়ুয়ারা। মামলাকারীদের পক্ষে সিনিয়র অ্যাডভোকেট গোপাল শঙ্করনারায়ন প্রশ্ন করেন । আইনজীবী শশাঙ্ক সিং এর মাধ্যমে তিনজন UPSC পরীক্ষার্থী শীর্ষ আদালতে এই পিটিশনটি দায়ের করেন ।

পরীক্ষার্থীদের দাবি, সিভিল সার্ভিসের মেয়েন্স পরীক্ষায় তাঁদের আবারও পরীক্ষার সুযোগ প্রদান করা হোক। তাদের বক্তব্য মেয়েন্স পরীক্ষার ফলাফল বেরোনোর আগেই তারা যেই পেপারগুলিতে বসতে পারেনি, সেই পেপারগুলিতে তাঁদের বার পরীক্ষা নেওয়া হোক। তারা আদালতকে জানান যে ২০২১ সালের প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় তাঁরা পাশ করেছিলেন। তারপর জানুয়ারি মাসের ৭ থেকে ১৬ তারিখের মধ্যে ইউপিএসসি মেয়েন্স পরীক্ষায় বসার কথা ছিল তাঁদের। তবে কোরণায় আক্রান্ত হওয়ার ফলে ও সরকারের পক্ষ থেকে বিধি নিষেধের কারণে মেয়েন্স পরীক্ষায় তারা বসতে পারেনি।তারা আরও বলেন , যে সকল পরীক্ষার্থীরা মেয়েন্স পরীক্ষার ঠিক আগে বা সেই সময় করোনায় আক্রান্ত হন , তাঁদের UPSC পক্ষ থেকে কোনো সুযোগ দেওয়ার কথাও বলা হয়নি ।

আদালতের কাছে দায়ের করা পিটিশনে তারা অভিযোগ করে, যে

আদালতের কাছে দায়ের করা পিটিশনে তারা অভিযোগ করে, যে পরীক্ষার্থীরা কোরনায় আক্রান্তের কারণে পরীক্ষায় বসতে পারেননি, তাদের জন্য কোনও আলাদা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি UPSC । আবেদনকারীরা এক্ষেত্রে ভারতীয় সংবিধানের ১৪ ও ১৬ নম্বর ধারা অমান্য করা হয়েছে বলে দাবি করে ।গতবছর ২০২১ সালে ১০ অক্টোবর পুরদেশে বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্রে UPSC সিভিল সার্ভিসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা আয়োজিত হয়। এবং যেই পরীক্ষার্থী এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন, তাঁদের মেয়েন্স পরীক্ষায় বসার অনুমতি প্রদান করা হয় । ৭ জানুয়ারি শুরু হয় মেয়েন্স পরীক্ষা এবং ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত এই পরীক্ষা চলে। এবার এই পরীক্ষায় যারা উত্তীর্ণ হবে তাঁদের ইন্টারভিউ পর্বের জন্য ডেকে পাঠানো হবে। অনেকেই কোরণায় আক্রান্তের ফলে পরীক্ষায় বসতে পারেননি এবং তাদের UPSC এর পক্ষ থেকে কোনো সুযোগ করে দেওয়া হয়নি যার কারণে তারা কোর্টের দ্বারস্থ হয়।

কোরনা আবহে UPSC পরীক্ষা না দিতে পেরে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ পরিক্ষার্থীরা

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: