25 C
Kolkata
Monday, November 28, 2022
বাড়িরাজ্যজেলাক্লাস ২ পর্যন্ত পড়াশোনা করেই ডাক্তার! ধরা পরে কান্নায় ভেঙে পড়লেন

ক্লাস ২ পর্যন্ত পড়াশোনা করেই ডাক্তার! ধরা পরে কান্নায় ভেঙে পড়লেন

ফের ধরা পড়ল ‘ভুয়ো ডাক্তার’ (Fake Doctor)। বিশেষভাবে সক্ষম শিশুর চিকিৎসা করতে এসে ধরা পড়ল ‘রংবাজ ডাক্তার’। মঙ্গলবার এই ঘটনাটি বানারহাট থানার অন্তর্গত গয়েরকাটা (Gairkata) এলাকায় ঘটেছে। জানা গিয়েছে, এদিন সকালবেলা ওই ব্যক্তি এক বিকলাঙ্গ শিশুর চিকিৎস‌া করতে আসে। নিজেকে আর্যুবেদিক চিকিৎসক পরিচয় দিয়ে চিকিৎসা করতে গিয়েই বিপাকে পড়েন ওই ব্যক্তি। ওই আর্যুবেদিক চিকিৎসকের নাম রংবাজ শেখ। তিনি মুর্শিদাবাদ (Murshidabad) জেলার জঙ্গীপুর এলাকার বাসিন্দা।

মঙ্গলবার জলপাইগুড়ি জেলার বানারহাটের সুভাষ পল্লীর বাসিন্দা বিশ্বজিৎ রায়ের ৬ বছরের ছেলেকে চিকিৎসা করাতে যান তিনি। ঋষি রায় নামের ওই শিশুটি বিশেষভাবে সক্ষম। বিভিন্ন জায়গায় শিশুটির চিকিৎসা করিয়েও শিশুটির পরিবারের লোক কোনও ফল পাননি। তারপর ওই ব্যক্তি বিশ্বজিতের বাড়িতে এসে ঋষিকে ভালো ভাবে পরীক্ষা করে ওষুধ‌ও দেন। তারপরই ওই ব্যক্তি ওষুধের দাম হিসেবে ২৮ হাজার টাকা দাবি করেন। ওষুধ‌ের এই অস্বাভাবিক দাম শুনে ওই শিশুটির বাড়ির লোকের সন্দেহ হয়। তারপরই তারা অনলাইনে ওই ভুয়ো ডাক্তারের আই কার্ডের নাম ও ডিগ্রি দিয়ে অনলাইনে সার্চ করা মাত্রই আসল ব্যাপারটি বুঝতে পারেন।

এরপরই আজ সকালে ঋষির বাড়ির সদস্যরা ওষুধ নেবেন বলে রংবাজ শেখকে ডেকে পাঠান। ওই ব্যক্তি বিশ্বজিৎ বাবুর বাড়িতে উপস্থিত হলে পাড়া প্রতিবেশীরা মিলে ওই ভুয়ো ডাক্তারকে ঘিরে ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করতে শুরু করে। সকলের চাপে পরে পরে কান্নায় আপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি। তারপরই ওই ব্যক্তি স্বীকার করেন তিনি ক্লাস টু অবধি পড়াশোনা করেছেন। এই ঘটনার পর স্থানীয় বাসিন্দারা বিন্নাগুড়ি পুলিশ ফাঁড়িতে খবর দেন। তারপরই পুলিশ এসে ওই ভুয়ো আয়ুর্বেদিক চিকিৎসককে গ্রেফতার করেন।

ক্লাস ২ পর্যন্ত পড়াশোনা করেই ডাক্তার! ধরা পরে কান্নায় ভেঙে পড়লেন

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: