25 C
Kolkata
Monday, November 28, 2022
বাড়িরাজনীতিজয়প্রকাশ মজুমদারের তৃণমূলে যোগ দেওয়া নিয়ে মুখ খুললেন দিলীপ ঘোষ

জয়প্রকাশ মজুমদারের তৃণমূলে যোগ দেওয়া নিয়ে মুখ খুললেন দিলীপ ঘোষ

অনেকদিন আগেই দিলীপ ঘোষকে বিজেপির রাজ্য সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। বর্তমানে তিনি বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি। কিন্তু এখনও তার মন্তব্যে রাজ্য রাজনীতি মাঝে মাঝেই সরগরম হয়ে ওঠে। দিলীপ ঘোষ খুবই শরীর সচেতন। তিনি প্রতিদিন ভোরে নিউ টাউনের ইকো পার্কে আসেন। সেখানে শরীরচর্চার পাশাপাশি সংবাদমাধ্যমেও মাঝে মাঝে বক্তব্য দেন তিনি। আজ এয়ারপোর্টে ধরা দিলেন দিলীপ ঘোষ। সেখানই তিনি একাধিক ইস্যু নিয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া জানান। আজ দিল্লি গেলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ।আজ দিলীপ ঘোষকে জয়প্রকাশ মজুমদারকে নিয়ে প্রশ্ন করা হয় । গতকাল বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগ দেন জয়প্রকাশ মজুমদার।

এই বিষয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, ”কিছু পেশাদার লোক থাকেন। তারা যখন যেমন, তখন তেমন। এর আগে উনি কংগ্রেস করতেন। পরের দিন বিজেপির হয়ে মিডিয়ায় বসলেন। আগে বলা হতো আয়ারাম গয়ারাম । ফুটবল ক্লাব চেঞ্জ করার মতো দল চেঞ্জ করে এঁরাব। কিছু লোক আসবে যাবে। এতে কিছু আসে যায় না। দল আমরা দাঁড় করিয়েছি। পার্টি এখন গাড্ডায় পড়েছে। আমরা আবার সেটা নিয়ে বসব।”শুধু তাইনয় বর্তমানে তৃণমূলের সাংগঠনিক রদবদল নিয়েও কটাক্ষ করেন দিলীপ। তিনি বলেন, ”এক ব্যাক্তি এক পদ তৃণমূল কংগ্রেসে সম্ভব নয়। আমরা করি বলে ওঁরাও লোক দেখানো করেছিল। উনি চার পাঁচ জন লোকের বেশি কাউকে বিশ্বাস করেননা।

বেশী লোক কন্ট্রোল করা মুশকিল। কারণ ওই পার্টিটা হল পারিবারিক পার্টি।”কিন্তু শুধু জয়প্রকাশ নন বিজেপির অন্দরে এখন অনেকেই আছেন যারা দলের প্রতি ক্ষুব্ধ । বারংবার তারা দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন । তাদের উদ্দেশ্য করে দিলীপ ঘোষ বলেন, ”বিক্ষুব্ধরাও জয়প্রকাশ নিয়ে ফাঁপড়ে। কারণ তারাও শেষ মুহুর্তে জানতেন না উনি দল বদল করছেন। বিক্ষুব্ধরাই ঠিক করুন তারা কী করবেন। মতের অমিল থাকতেই পারে। তারা সেটা কথা বলতে পারতেন ।” বর্তমানে বিজেপির অন্দরে ডামাডোল অবস্থা। একের পর এক নেতা দল বদল করছেন। অনেকে দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন। এখন এটাই দেখার কতদিনে এই সমস্যার সমাধান হয়।

জয়প্রকাশ মজুমদারের তৃণমূলে যোগ দেওয়া নিয়ে মুখ খুললেন দিলীপ ঘোষ

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: