25 C
Kolkata
Monday, October 3, 2022
বাড়িদেশ বিদেশনিজের গদি বাঁচতেই কি ভারতের প্রশংসা করলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান?

নিজের গদি বাঁচতেই কি ভারতের প্রশংসা করলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান?

বর্তমানে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের গদি টলমল। তিনি এখন সারা দেশ ঘুরে নিজের জনপ্রিয়তা অর্জন করার চেষ্টা করছেন। এর মাঝেই রবিবার পাক প্রধানমন্ত্রী একটি মন্তব্য করেন। তিনি বলেন ,’ ভারতের বিদেশনীতি পাকিস্তানের থেকে ভালো।’ কূটনৈতিক মহল এই সময় ভারতের এমন প্রশংসাকে তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন ।চলতি মাসের ২৫ তারিখ পাকিস্তানে আস্থাভোট আছে। এই ভোটে বিরোধীদের দাবি মেনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে হবে ইমরান খানের সরকারকে। এই সময় খাইবার পাখতুনখাওয়ার মালাকাণ্ডের একটি সমাবেশে দাঁড়িয়ে ইমরান খান বলেন, “আমি আজ ভারতের বিদেশ নীতির প্রশংসা করতে বাধ্য হচ্ছি। সবসময় স্বতন্ত্র বিদেশ নীতি বজায় রেখে চলেছে তারা। বর্তমানে কোয়াডের সদস্য দেশ ভারত। আমেরিকাও কোয়াডের সদস্য।

জানুয়ারি মাসেও ভারতের প্রযুক্তিগত উন্নতি নিয়ে প্রশংসা করেছিলেন ইমরান খান

পশ্চিমী দেশগুলি রাশিয়ার সঙ্গে আর্থিক লেনদেন বন্ধ করা সত্ত্বেও সেখান থেকে তেলের আমদানি করে চলেছে ভারত। কারণ, ভারতের বিদেশ নীতি তাদের দেশের মানুষের স্বার্থের উপর নির্ভর করে।” পাক প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, তাঁর বিদেশ নীতিও পাকিস্তানের সাধারণ মানুষের কথা মাথায় রেখেই কাজ করে। তিনি বলেন,”আমি কখনও কারও সামনে মাথা নত করিনি। আমার দেশের মাথাও যাতে কখনো নত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখব।” এই বছর জানুয়ারি মাসেও ভারতের প্রযুক্তিগত উন্নতি নিয়ে প্রশংসা করেছিলেন ইমরান খান। দেশে বিনিয়োগ আনার জন্য কেন্দ্র যে নীতি নিয়েছে তার প্রশংসা করেন তিনি। সম্প্রতি জাপান, আমেরিকা, কিংবা অস্ট্রেলিয়ার মতো কোয়াড দেশগুলি মস্কোর সাথে যাবতীয় সম্পর্ক শেষ করেছে।

রাশিয়ার সাথে তেলের আমদানির সম্পর্ক ছিন্ন করেছেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। শুধু তাইনয়,রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউনাইটেড নেশন এর General Assembly -তে নিন্দা প্রস্তাব আনা হয়। তবে সেখানে ভোটাভুটি থেকে বিরত থাকে ভারত। রাষ্ট্রসংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টি এস তিরুমূর্তি বলেন, ইউক্রেনের উপর হামলার বিষয়টিকে ভারত সমর্থন করে না। দুই দেশ আলোচনার টেবিলে বসে বিষয়টি মিটিয়ে নিক। এই ভোটাভুটির দিনে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মস্কোতেই ছিলেন। তারাও রাশিয়ার বিরুদ্ধে হওয়া ভোটাভুটি থেকে বিরত থেকেছিল। ইমরান খানের ঘনিষ্ঠ মন্ত্রীদের দাবি, তাঁর বিরুদ্ধে যে অনাস্থা প্রস্তাব আনা হয়েছে তার জন্য পাকিস্তানের বিদেশ নীতি একমাত্র দায়ী। এই ক্ষেত্রে পশ্চিমের দেশগুলি অনেকটাই প্রভাব খাটাচ্ছে বলেও দাবি করেন তারা। তবে বারংবার ভারতের প্রশংসা কতটা কার্যকর হবে সেটা সময় বলবে।

নিজের গদি বাঁচতেই কি ভারতের প্রশংসা করলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান?

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: