25 C
Kolkata
Sunday, December 4, 2022
বাড়িরাজ্যকলকাতাবৌভাতের দিনই বউ পালাল শ্বশুর বাড়ির পাঁচিল দিয়ে

বৌভাতের দিনই বউ পালাল শ্বশুর বাড়ির পাঁচিল দিয়ে

বৌভাতের দিনই বউ পালাল শ্বশুর বাড়ির পাঁচিল দিয়ে। ঘটনাটি ঘটেছে অশোকনগর থানার মানিকতলা এলাকায়। জানা গিয়েছে, অশোকনগর মানিকতলার বাসিন্দা পেশায় ফুল ব্যবসায়ী বছর ছাব্বিশের (২৬)-এর এক যুবকের সঙ্গে হুগলি জেলার কোন্নগর-এর বাসিন্দা ওই কনের দেখাশোনার মাধ্যমে বিয়ে হয়েছিল। বৃহস্পতিবার সাতপাকে বাঁধা পড়েন দুজনে।বাঙালির বিয়ের রীতি অনুযায়ী ঠিক তার পরের দিন শুক্রবার ছিল কালরাত্রি, নবদম্পতির কেউ কারো মুখ দেখাদেখি চলবে না। সেইমতো ওই সদ্য বিবাহিত যুবক নববধূকে বাড়িতে রেখে পাশের এক আত্মীয়ের বাড়িতে গিয়েছিল রাত্রি যাপন করতে। শনিবার কাকভোরে প্রতিবেশী এক প্রত্যক্ষদর্শীর মাধ্যমে খবর ছড়ায় নববধূ পাঁচিল বেয়ে রেললাইন ধরে পালিয়েছে।

অনেক খোঁজাখুঁজির পরে ঘণ্টা দুয়েক বাদে অশোকনগর বাসস্ট্যান্ডের কাছ থেকে নববধূর সন্ধান মেলে।স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বধূ বাসেও উঠেছিল। কন্ডাক্টরের সন্দেহ হলে বাস থেকে নামিয়ে দেন। নববধূকে ফের নিয়ে আসা হয় শ্বশুর বাড়ি। পালিয়ে যাওয়ার কারণ জানতে চাইলে কর্কশ স্বরে তিনি জানান, তিনি অন্য একটি ছেলেকে ভালোবাসেন। তাকেই বিয়ে করবেন। এর পরে খবর দেওয়া হয় বাপের বাড়ির লোকজনকে।খবর যায় পুলিস প্রশাসনের কাছেও। পুলিসের উপস্থিততে নববধূকে তুলে দেওয়া হয় বাপের বাড়ির লোকজনের হাতে। সম্পর্কে ওই যুবকের এক দাদা জানিয়েছেন, বৌভাতের অনুষ্ঠানে পাড়া প্রতিবেশী আত্মীয়-স্বজন সব মিলিয়ে দুশো লোক নিমন্ত্রিত ছিল।

এ ঘটনার পর তাঁদের কাছে মুখ দেখানও যাবেনা।ছেলের দিদা জানিয়েছেন,তাঁর বয়স ৭৫ বছর। এরকম ঘটনা কোনদিনও দেখেননি এত বছরে। নববধূকে পালাতে দেখা প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, যাতে কারো সন্দেহ না হয় তাই নিজের বিছানায় পাশবালিশ রেখে কম্বল মুড়ি দিয়ে, তারপরে নতুন বউ তাঁর চোখের সামনে দিয়ে পালিয়েছিল। বৌভাতের অনুষ্ঠানে তাঁদেরও নিমন্ত্রণ ছিল। উপহারও কিনেছিলাম কিন্তু বৌভাতটাই যে আর হল না উপহার দেব কি করে!

বৌভাতের দিনই বউ পালাল শ্বশুর বাড়ির পাঁচিল দিয়ে

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: