25 C
Kolkata
Thursday, December 1, 2022
বাড়িরাজ্যরাজ্যের নতুন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস, জেনে নিন তাঁর কর্মজীবন

রাজ্যের নতুন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস, জেনে নিন তাঁর কর্মজীবন

বাংলার নতুন রাজ্যপাল (Governor) হবেন সিভি আনন্দ বোস (CV Anand Bose)। তিনি পশ্চিমবঙ্গের ২২ তম রাজ্যপাল। বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতি ভবনের তরফে এই কথা ঘোষণা করা হয়েছে। এক বিবৃতির মাধ্যমে জানানো হয়েছে, সি ভি আনন্দ বোসকে পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী রাজ্যপাল হিসাবে নিয়োগ করা হবে। বিবৃতিতে বলা হয়, ‘স্থায়ী ভাবে বাংলার রাজ্যপাল হিসেবে ডঃ সিভি আনন্দ বসুকে নিয়োগ করলেন রাষ্ট্রপতি। যে দিন দায়িত্ব গ্রহণ করবেন উনি, সে দিন থেকেই ওঁর কার্যকাল শুরু হবে’।

১৯৫১ সালের ২ জানুয়ারি কেরলের কোট্টায়ামে আনন্দ বোস জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৭ সাল থেকে তিনি আইএএস কর্মরত। স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়ার প্রবেশনারি অফিসার হিসেবে তিনি প্রথম চাকরি জীবন কলকাতাতেই শুরু করেছিলেন। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার ও রাজ্য সরকারে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে কর্মরত ছিলেন তিনি। কেরলের মুখ্যমন্ত্রীর সচিব, জেলাশাসক, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যসহ বিভিন্ন দায়িত্ব কোঠর ভাবে পালন করেছেন তিনি। আনন্দ বোস ভারত সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পে যুক্ত ছিলেন।

তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ‘ম্যান অফ আইডিয়া’ হিসাবে পরিচিত। আনন্দের ভাবনা কাজে লাগিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক প্রকল্প শুরু করা হয়েছে। দেশেবাসীর জন্য পাকা বাড়ির ভাবনাটি প্রধানমন্ত্রী তাঁর কাছ থেকেই নিয়েছিলেন। এছাড়াও তিনি কেরলের মুখ্যমন্ত্রীর সচিব হিসাবে কাজ করেছেন। কেরল সরকারের বিভিন্ন দফতরের প্রধান সচিব হিসাবে দায়িত্ব সামলেছেন তিনি। তাঁর ঝুলিতে ২৯টি জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক পুরস্কার রয়েছে। ইংরেজি, হিন্দি ও মালয়ালম ভাষায় তার বিপুল দক্ষতা।

আনন্দ বোস প্রায় ৪০ টির ওপর বই লিখেছেন

আনন্দ বোস প্রায় ৪০ টির ওপর বই লিখেছেন। তার মধ্যে যেমন উপন্যাস রয়েছে, তেমনই রয়েছে ছোটগল্প সংগ্রহ, এমনকি কবিতার বইও রয়েছে। শিক্ষাজীবনে ১৫টি স্বর্ণ পদক সহ ছাড়াও ১০০টির বেশি পদক লাভ করেছেন তিনি। একজন সুবক্তা হিসেবে তিনি পরিচিত ছিলেন। প্রাক্তন আইএএস আনন্দ মেঘালয় সরকারের উপদেষ্টা ছিলেন। উল্লেখ্য, পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় উপরাষ্ট্রপতি হওয়ার পর পশ্চিমবঙ্গের অস্থায়ী রাজ্যপাল হিসাবে দায়িত্ব নিয়েছিলেন লা গণেশন।

কিন্তু তাঁকে ঘিরে বিজেপির অন্দরে অসন্তোষ ছিল। সম্প্রতি বিরোধী দল নেতা শুভেন্দু অধিকারীও গণেশনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিলেন। একা শুভেন্দু নন, গণেশনকে নিয়ে বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পালও অসন্তোষ জানিয়েছিলেন। প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে বঙ্গবাসীর মধ্যে একটাই প্রশ্ন ঘুরছে তবে কি সংঘাতের আবহ তৈরি হবে রাজ্যে? এই প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, “অভিযোগ অভিযোগই হয়, ফ্যাক্ট কী দেখতে হবে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী।”

রাজ্যের নতুন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস, জেনে নিন তাঁর কর্মজীবন

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: