25 C
Kolkata
Monday, November 28, 2022
বাড়িরাজ্যবিয়ে করার দাবিতে প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনা

বিয়ে করার দাবিতে প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনা

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে পালিয়ে যায় এক যুবক। তবে যুবতীও নাছোড় বান্দা। বিয়ে করার দাবিতে প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনা দেয় ওই যুবতী। প্রথমে সোশ্যাল মিডিয়ায় আলাপ তারপর প্রেম, শেষে একে অপরকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি। তবে হঠাৎ করেই পালিয়ে যায় ওই যুবক। যারফলে দুই চারদিন নয়, টানা ১১ দিন ধরে ধরনা চালিয়ে যাচ্ছেন ওই যুবতী। সেই যুবতী বলেছে ওই যুবক ফিরে না এলে এবং বিয়ে না হলে আত্মহত্যা করবে । কোচবিহারের দিনহাটা-২ নম্বর ব্লকের নয়ারহাটে এই ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।পুলিশ সূত্রে খবর, দিনহাটা-২ নম্বর ব্লকের নয়ারহাটের কিশাগঞ্জ এলাকার যুবক যার নাম গৌরাঙ্গ বর্মন, তার বাড়ির সামনে ১১ দিন ধরে ধরনায় বসেছেন পার্শ্ববর্তী গ্রাম কিশামতদশের এক যুবতী।

তার দাবী ,গৌরাঙ্গ বর্মন তাঁকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে পালিয়ে গিয়েছে । যদিও সেই যুবতীটি এখনও থানায় কোনও অভিযোগ দায়ের করেননি। ফলে অভিযুক্ত যুবক বা তার পরিবারের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নিতে পারছে না পুলিশ।স্থানীয় সূত্রে খবর, ধরনায় বসা ওই যুবতীর সঙ্গে কয়েক মাস আগে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে গৌরাঙ্গ বর্মনের পরিচয় হয়। তারপর দুজনের মধ্যে ক্রমে বন্ধুত্ব ও প্রেম তৈরি হয় । গৌরাঙ্গ বর্মন ওই যুবতীকে বিয়ে করার প্রতিশ্রুতিও দেয় বলে অভিযোগ করছে তারা । কিন্তু সম্প্রতি হঠাৎ করেই উধাও হয়ে যায় সেই যুবক। তার সঙ্গে কোনভাবে যোগাযোগ করতে না পেরে অবশেষে বিয়ের দাবিতে নয়ারহাটের কিশাগঞ্জ এলাকায় তার বাড়ির সামনেই ধরনায় বসেন যুবতী।

কিন্তু পাত্তা নেই গৌরাঙ্গ বর্মনের। তার পরিবারের লোকজনও এই বিষয়ে কথা বলছে না । ফলে যুবতী বলছে এবার গৌরাঙ্গ বর্মন তাঁকে বিয়ে না করলে সে আত্মহত্যা করবে। তারপরেও যুবকের পরিবারের কোনও সাড়াশব্দ নেই।কয়েকদিন আগে যুবতীর ধরনার খবর পেয়ে সাহেবগঞ্জ থানার পুলিশও আসে এবং গৌরাঙ্গ বর্মনের পরিবারকে বিষয়টি মিটমাট করে নেওয়ার পরামর্শ দেয়। কিন্তু তাতে কোনো লাভ হয়নি । এরপর গৌরাঙ্গের বাড়িতে যান বাম সমর্থিত এলাকার মহিলা সমিতির সদস্যরা। তাঁরা ওই যুবকের মা বাবাকে তাঁদের ছেলেকে নিয়ে এসে সেই যুবতীর সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার দাবি জানান।

প্রেমিকার বাড়ির সামনে বা প্রেমিকের বাড়ির সামনে যুবতীর ধরনা দেওয়ার ঘটনা নতুন বিষয় না

মহিলা সমিতির নেত্রী বাসন্তী বর্মন বলেন, “ওই যুবতীর সঙ্গে গৌরাঙ্গ বর্মন যে আচরণ করেছে তা কিছুতেই মেনে নেওয়া যায় না। তাই যুবকের মা বাবার উচিত, তাঁদের ছেলেকে ফিরিয়ে এনে ওই মেয়েটির সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করা।”এই বিষয়ে গৌরাঙ্গ বর্মনের বাবা মা ছেলের সিদ্ধান্তের উপরই সমস্ত কিছু ছেড়ে দিয়েছেন । তারা বলেন তাঁদের ছেলে চাকরিসূত্রে বাইরে রয়েছে এবং সে আসলেই ওই যুবতীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল কিনা তা তাঁরা জানেন না।বিয়ে করার দাবিতে যুবকের প্রেমিকার বাড়ির সামনে বা প্রেমিকের বাড়ির সামনে যুবতীর ধরনা দেওয়ার ঘটনা নতুন বিষয় না। কিন্তু এতো দিন ধরে এই ধরনা দেওয়া দেখা যায়নি। তবে এই জোড় করে বিয়ে করা কতটা ঠিক টিকাও তা বলা মুশকিল।

বিয়ে করার দাবিতে প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনা

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: