25 C
Kolkata
Sunday, September 25, 2022
বাড়িরাজনীতিআবারও সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠলো ভাটপাড়া (Bhatpara) এলাকা, চলল গুলি

আবারও সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠলো ভাটপাড়া (Bhatpara) এলাকা, চলল গুলি

নেতাজির মূর্তিতে মালা পরানোর জন্য ভাটপাড়ার ৯ নম্বর ওয়ার্ড রণক্ষেত্র..

প্রায়শই ভাটপাড়ায় (Bhatpara) কোনোনা কোনো বিষয় নিয়ে দুই রাজনৈতিক দলের মধ্যে সংঘর্ষ চলতে থাকে । আজ ২৩ জানুয়ারি নেতাজির জন্মজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে সকাল থেকেই তৃণমূল বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠলো ভাটপাড়া এলাকা । সেই অনুষ্ঠানে বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানো হয় বলে জানা যাচ্ছে । পরিস্থিতি খারাপের দিকে গেলে সিআইএসএফ শূন্যে সাত রাউন্ড গুলি চালায় । ফলে এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয় । সকালের এই ঘটনায় রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় ভাটপাড়া এলাকা । এরপরেই এলাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয় যাতে আর কোনো বিক্ষোভ সৃষ্টি না হয় ।

সূত্রের দ্বারা খবর , দুইদলের মধ্যে বাকবিতন্ডার জেরে ঝামেলা শুরু হয় । ঘটনাক্ষেত্রে দুটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয় । ঝামেলার কথা শুনে সেখানে বিজেপির ভাটপাড়ার সাংসদ অর্জুন সিং (Arjun Singh) যাবার পর তাকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানো হয় । তার দেহরক্ষীরা তাকে বাঁচাতে শুন্যে সাত রাউন্ড গুলি চালায় । নেতাজির মূর্তিতে মালা পরানোর জন্য ভাটপাড়ার ৯ নম্বর ওয়ার্ড রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে । জানাজাচ্ছে , ঘটনাস্থলে অর্জুন সিংয়ের সঙ্গে ভাটপাড়া পুরসভার প্রশাসক গোপাল রাউতের ধাক্কাধাক্কি লেগে যায় । তারপরেই পরিস্থিতি সামলে সেখানে বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করে তাদের সরিয়ে দেওয়া হয় ।

ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে

সূত্রের দ্বারা খবর , আজ সকালে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মজয়ন্তী উপলক্ষ্যে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বিজেপি । সেখানে নেতাজির পতিকৃতে মাল্য দান করতে যান বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং ও তার ছেলে পবন সিং । সেখানে তাদের কিছু তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী তা বাধা দেন বলে অভিযোগ আসছে । তারপরেই শুরু হয় বোমাবাজি । অর্জুন সিংকে ঘিরে ইট বৃষ্টি করে তারা । ফলে তার দেহরক্ষীরা শুন্যে গুলি চালায় ।

এই ঘটনায় তৃণমূলের ভাটপাড়া (Bhatpara) পুরসভার প্রশাসক গোপাল রাউত অভিযোগ করে বলেন, ‘”এখানে মালা দিতে এসেছিলাম। তখন বিজেপির কর্মীরা অসভ্যতা করতে শুরু করে দেয় । তারপর অর্জুন সিং ও তাঁর ছেলে জোর জবরদস্তি করে এখানে এসে মালা দিতে যায় । তার প্রতিবাদও করা হয় । তখন বিজেপির কর্মীরা চড়াও হয় । তা থেকেই এই সংঘর্ষ বাধে। অর্জুন সিংয়ের দেহরক্ষী সিআইএসএফ তখন আমাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় ।” ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে যাতে আবার কোনো বিক্ষোভ না হয় ।

আবারও সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠলো ভাটপাড়া এলাকা, চলল গুলি

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: