25 C
Kolkata
Sunday, September 25, 2022
বাড়িদেশ বিদেশপ্রাণ খোয়াতে হল আরও এক রুশ সেনা আধিকারিককে

প্রাণ খোয়াতে হল আরও এক রুশ সেনা আধিকারিককে

ইউক্রেন দখলে মরিয়া রাশিয়া ,রাশিয়া ও ইউক্রেনের যুদ্ধে প্রাণ খোয়াতে হল আরও এক রুশ সেনা আধিকারিককে। ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে একথা জানানো হয়েছে। নিহত রুশ সেনা আধিকারিকের নাম ‘ইয়াকভ রেজান্তসেভ’। তিনি ‘লেফটেন্যান্ট জেনারেল’পদমর্যাদার সেনা আধিকারিক ছিলেন। দক্ষিণ ইউক্রেনের ‘খেরসন’ শহরে তাঁর মৃত্যু হয়। সূত্রের দাবি, ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর সঙ্গে লড়াইয়েই প্রাণ হারিয়েছে ওই রুশ সেনা আধিকারিক। তিনি রাশিয়ার ৪৯তম সংযুক্ত বাহিনীর কমান্ডার ছিলেন। পশ্চিমী রাষ্ট্রগুলির পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে এই নিয়ে ইউক্রেনের যুদ্ধে মোট সাতজন জেনারেলের মৃত্যু হল। এবং লেফটেন্যান্ট জেনারেল হিসেবে তিনিই হলেন দ্বিতীয়জন, যাঁকে পড়শি দেশে যুদ্ধ করতে এসে নিজের জীবন দিতে হল।

এই প্রসঙ্গে, একটি চাঞ্চল্য দাবি নানা মহলের পক্ষ থেকে করা হচ্ছে। বলা হচ্ছে রুশ সেনাবাহিনীর নিচুতলার সদস্যদের একটা বড় অংশই নাকি আর যুদ্ধ করার মতো আগ্রহ পাচ্ছেন না। তাই তাঁরা সামনে থেকে ইউক্রেনীয়দের বিরুদ্ধে অস্ত্র তুলতে রাজি হচ্ছেন না। এই অবস্থায় পুতিন প্রশাসনের মান রক্ষা করতে সেনাবাহিনীর শীর্ষস্থানীয় আধিকারিক দেরই একেবারে সামনে থেকে লড়াই করতে হচ্ছে ,ফলে তাঁদের মৃত্যুও হচ্ছে। তবে, এই দাবি মস্কো কখনই মানতে রাজি নয়।ইউক্রেনীয় গোয়েন্দা বিভাগ রুশ সেনাবাহিনীর কথোপকথনে আড়ি পেতে একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য হাতে পেয়েছে। তারা জানতে পেরেছে, যুদ্ধ শুরু হওয়ার চারদিন পর এই ‘ইয়াকভ রেজান্তসেভই’ নাকি সেনাবাহিনীকে বুঝিয়েছিলেন আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা অপেক্ষা,তারপরই যুদ্ধ শেষ হয়ে যাবে!কিন্তু, বাস্তবে তেমন কিছুই ঘটেনি।ইউক্রেনের সেনা রাশিয়াকে যোগ্য জবাব দিয়ে চলেছে।

এমনই একটি হামলায় প্রাণ যায় ‘ইয়াকভ রেজান্তসেভের’

উপরন্তু, রাশিয়ার উপর লাগাতার আর্থিক বিধিনিষেধের খাঁড়া চালাচ্ছে পশ্চিমী দেশগুলি। এই প্রেক্ষাপটে যুদ্ধ করার মানসিকতায় ভাটা পড়ছে রুশ সেনার অন্দরে। ফলে উঁচুতলার সেনা আধিকারিকরা এগিয়ে আসতে বাধ্য হচ্ছেন।ইউক্রেনীয় সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে ‘খেরসন’ শহরের কাছে যে বিমান ঘাঁটি রয়েছে, অনেক আগেই সেটির দখল নিয়েছে রুশ সেনাবাহিনী। তারা ওই বিমান ঘাঁটি নিজেদের সেনাছাউনি হিসেবে ব্যবহার করছে। তারপর থেকে একাধিকবার ইউক্রেনের সেনাবাহিনী এই বিমান ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে। এমনই একটি হামলায় প্রাণ যায় ‘ইয়াকভ রেজান্তসেভের’। এই একই জায়গায় মৃত্যু হয়েছিল আরও এক রুশ লেফটেন্য়ান্ট জেনারেল ‘আন্দ্রেয়ী মর্দভিচেভের’। তাঁকেও ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর হামলার মুখেই প্রাণ হারাতে হয়েছিল। প্রসঙ্গত, ইউক্রেনের উপর হামলা শুরু করার পর এই ‘খেরসন’ শহরটিকেই সর্বপ্রথম দখল করেছিল রুশ সেনাবাহিনী। আর তারপর থেকেই এই শহরে প্রায় প্রতিদিন বিক্ষোভ চলছে।।

প্রাণ খোয়াতে হল আরও এক রুশ সেনা আধিকারিককে

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: