25 C
Kolkata
Monday, November 28, 2022
বাড়িরাজ্যজেলাবাঁকুড়ায় রহস্যজনক এক গুহার সন্ধান মিলল

বাঁকুড়ায় রহস্যজনক এক গুহার সন্ধান মিলল

বাঁকুড়ার (Bankura) জঙ্গলমহলের এক রহস্যজনক গুহার (cave) হদিস মিলল। বাঁকুড়ার খাতড়ার পোড়া পাহাড়ে ওই গুহার সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। সোমবার বাঁকুড়ার পোড় পাহাড়ের মাঝে স্থানীয় গবেষকরা এই গুহার সন্ধান পেয়েছেন। মধুসূদন মাহাতো নামে এক স্থানীয় গবেষক এই গুহাটির সন্ধান পান। গুহার দৈর্ঘ্য এবং আকার দেখে চমকে গিয়েছেন তারা। মনে করা হচ্ছে গুহাটি প্রায় ১০০ থেকে ১৩০ ফুট গভীর। স্থানীয় গবেষকদের কথায় ওই গুহায় আদিম মানুষেরা বসবাস করত। জানা গিয়েছে, গুহার উচ্চতা ৬ ফুট। চওড়ায় ৪-৫ ফুট।

গুহাটির ভেতরে মোট সাতটি কুঠুরির সন্ধানও পাওয়া গিয়েছে। সুড়ঙ্গগুলি লম্বা এবং চওড়ায় যথাক্রমে ২০ ফুট ও ৭ ফুট। ওই গবেষকের মতে, তা মানুষের বসবাসের উপযুক্ত। এই প্রসঙ্গে মধুসূদন বলেন, ‘‘ওই সুড়ঙ্গ সংরক্ষণ করা উচিত। এর সংরক্ষণের প্রয়োজনীয়তা আছে। এই সুড়ঙ্গ গুহাবাসী আদিম মানুষের তৈরি করা হতে পারে।’’ উল্লেখ্য, এর আগে কখনও গন্ধেশ্বরী নদীর নিকটস্থ অঞ্চলে, কখনও মোশক পাহাড়ে নানা সুরঙ্গের সন্ধান মিলেছে। কিন্তু এই পোড়া পাহাড়ের গুহাটি প্রত্নবিৎ ও ইতিহাসবিদদের ভাবাচ্ছে।

কারণ সন্ধান পাওয়া গুহাটির ধরন-ধারণ একেবারেই নালার মতো নয়। এর মধ্যে মোট ৭টি কুঠুরি মিলেছে। তাই মনে করা হচ্ছে কেউ নিশ্চয়ই এই গুহায় থাকত। এই প্রসঙ্গে স্থানীয় বাসিন্দারা জানাচ্ছেন, গুহাটিতে আদিম মানুষ বসবাস থাকত। উল্লেখ্য, প্রাচীন যুগে আদিম মানুষেরা যে গুহায় বসবাস করতেন সেই গুহাগুলির মুখ সাধারণত উত্তর বা পশ্চিম দিকে হত। ঝড়-ঝাপটার হাত থেকে রেহাই পাওয়ার জন্যই তারা ওই দিকে গুহার মুখ রাখতেন। আর সন্ধান পাওয়া গুহাটির মুখও সেই দিকে। সেই কারণেই মনে করা হচ্ছে আদিম মানুষ এই গুহায় বসবাস করতেন।

বাঁকুড়ায় রহস্যজনক এক গুহার সন্ধান মিলল

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: