25 C
Kolkata
Tuesday, November 29, 2022
বাড়িদেশ বিদেশনদীর উপর ঝুলন্ত সেতু ভেঙে মৃত ১৪২ জন, চলছে উদ্ধার কাজ

নদীর উপর ঝুলন্ত সেতু ভেঙে মৃত ১৪২ জন, চলছে উদ্ধার কাজ

মাচ্চু নদীর উপর ঝুলন্ত সেতু (suspension bridge) ভেঙে আহত বহু মানুষ। এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি গুজরাটে (Gujarat) ঘটেছে। এখনও পর্যন্ত ১৪২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। একইসঙ্গে এই ঘটনার জেরে আহত বহু মানুষ। বহু মানুষকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই দুর্ঘটনার পর প্রথমে স্থানীয় বাসিন্দারা উদ্ধারকাজ চললেও, পরে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী এবং পুলিশ গিয়ে উদ্ধারকাজ শুরু করে। ওই সেতুটি ভেঙে পড়ার পরে কিছু মানুষ নদী সাঁতরে তীরে আসার চেষ্টা করেন। কিছু মানুষ ওই ভাঙা সেতুর রেলিং ধরে প্রাণ বাঁচানোর চেষ্টা করেন। এই ঘটনার জেরে স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, এই সেতু জনসাধারণের চলা ফেরার উদ্দেশ্যে চালু করার আগে প্রশাসনের কাছ থেকে সবুজ সঙ্কেত নেওয়া হয়নি।

গুজরাতের মাচ্চু নদীর উপর যে ঝুলন্ত সেতু ভেঙে পড়েছে, সংস্কারের জন্য দীর্ঘ ৭ মাস সেতুটি বন্ধ ছিল

এমনকি ওই সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করিয়ে কোনও ‘ফিটনেস সার্টিফিকেট’ নেওয়া হয়নি। এই মর্মান্তিক বিপর্যয়ের অন্যতম কারণ হিসাবে কর্তৃপক্ষের এই গাফিলতিকে দায়ী করা হচ্ছে। সূত্রের খবর, গুজরাতের মাচ্চু নদীর উপর যে ঝুলন্ত সেতু ভেঙে পড়েছে, সংস্কারের জন্য দীর্ঘ ৭ মাস সেতুটি বন্ধ ছিল। সংস্কারের পর গত ২৬ অক্টোবর তা খোলা হয়। ফের সেতুটি চালু হওয়ার ৬ দিনের মাথায় এই বিপর্যয় ঘটে। জানা গিয়েছে, ওই ঝুলন্ত সেতুটিতে রবিবার সন্ধ্যায় প্রায় ৫০০ মানুষ উঠেছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ার ছড়িয়ে পড়া ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, সেতুর উপর দাঁড়িয়ে কিছু মানুষ কীভাবে লাফালাফি করছেন অনেকে। এই ঘটনার পরই নদীর উপর হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে সেতুটি। উল্লেখ্য, রবিবারই তিন দিনের গুজরাত সফরে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)।

আর ঠিক এই সময়েই এই ঘটনা ঘটে। এই দুর্ঘটনার জেরে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। দুর্ঘটনা কবলিত মৃতদের পরিবারকে গুজরাত সরকারের তরফে ৪ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে মৃতদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। একইসঙ্গে আহতদের ৫০ হাজার টাকার আর্থিক সহায়তা করবে সরকার। সূত্রের খবর, ওরেভা’ নামের একটি বেসরকারি সংস্থাকে ওই সেতুটি সংস্কারের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। সংস্কারের জন্য দীর্ঘ ৭ মাস সেতুটি বন্ধ ছিল। ওরেভা’ নামক ওই সংস্থা তাদের কাছ থেকে কোনও শংসাপত্র নেয়নি। এমনকি ওই সেতু সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য সরকারকে জানানো হয়নি। প্রসঙ্গত, রবিবার রাতভোর মাচ্চু নদীতে উদ্ধারকার্য চলেছে। স্থানীয় বাসিন্দা এবং উদ্ধারকারী সহ প্রায় ২০০ জন উদ্ধারকার্যে হাত লাগিয়েছেন।

নদীর উপর ঝুলন্ত সেতু ভেঙে মৃত ১৪২ জন, চলছে উদ্ধার কাজ

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: