25 C
Kolkata
Thursday, December 1, 2022
বাড়িরাজ্যজেলাবোমা উদ্ধারের পর অস্ত্র তৈরির কারখানার হদিশ মিলল ভাটপাড়ায়

বোমা উদ্ধারের পর অস্ত্র তৈরির কারখানার হদিশ মিলল ভাটপাড়ায়

নিজস্ব সংবাদদাতা,অর্পিতা মন্ডল- গত শনিবার রাতে পুলিস ভাটপাড়া পুরসভার ৩৩ নং ওয়ার্ডের মাদ্রাল চণ্ডীতলা এলাকায় হানা দিয়ে ১৮টি তাজা কৌটো বোমা, ১৭ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে। এছাড়াও, কৌটো বোমা তৈরির জন্য যে সব সামগ্রী লাগে, যেমন মশলা, জাল কাঠি, ফাঁকা স্টিলের কৌটো সহ বিভিন্ন জিনিস উদ্ধার করেছিলেন।

ওই ঘটনার পর ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই অস্ত্র কারখানার হদিশ মেলায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। একটি বাড়ির ভিতরে এই অস্ত্র তৈরির কাজ চলছিল। রবিবার রাতে ওই কারখানায় অভিযান চালিয়ে দু’টি পিস্তল সহ পিস্তল তৈরির যাবতীয় সরঞ্জাম এবং মেশিনপত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এই ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিস জানিয়েছে, ধৃতের নাম সূরয প্রসাদ।

নির্বাচনের আগে যা পুলিসের বড় সাফল্য বলেই মনে করা হচ্ছে। আগ্নেয়াস্ত্র তৈরি ও সরবরাহের পিছনে কে বা কারা রয়েছে, তা খতিয়ে দেখছে পুলিস। তাদের খোঁজে তল্লাশি চলছে। পুলিস জানিয়েছে, গোপন সূত্রে খবর আসে ভাটপাড়ার কলাবাগান ২ নম্বর লেনের একটি বাড়িতে আগ্নেয়াস্ত্র তৈরি করা হচ্ছে। সেখানে হানা দিয়ে দু’টি পিস্তল পায় পুলিস।

এছাড়াও, পিস্তলের বডি তৈরির পাঁচটি লোহার প্লেট পাওয়া গিয়েছে। সেগুলি তখনও ঝালাই করা হয়নি। ওই প্লেটগুলি দেখে পুলিসের অনুমান, ওই পাঁচটি প্লেট দিয়ে পাঁচটি নাইন এমএম জাতীয় পিস্তল তৈরির পরিকল্পনা ছিল।

এছাড়াও সেখান থেকে পিস্তল তৈরির একাধিক সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। একটি ঝালাই মেশিন, একটি ড্রিল মেশিন, একটি কাটার মেশিনও পাওয়া গিয়েছে।

গত ৩০ মার্চ নৈহাটি থানার বাবাগাছি এলাকা থেকেও একটি অস্ত্র কারখানার হদিশ পেয়েছিল পুলিস। বারাকপুরের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (উত্তর) অমরনাথ কে বলেন, এই ঘটনায় একজন গ্রেপ্তার হয়েছে। আরও কেউ যুক্ত রয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: