25 C
Kolkata
Monday, December 5, 2022
বাড়িরাজনীতি"বাংলায় দুটো গদ্দার আছে বলে চুঁচুড়ার সভা থেকে মন্তব্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের"

“বাংলায় দুটো গদ্দার আছে বলে চুঁচুড়ার সভা থেকে মন্তব্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের”

নিজস্ব সংবাদদাতা, অর্পিতা মন্ডল- আজ সোমবার চুঁচুড়ার ব্যান্ডেলে সভা করতে গিয়েছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই জনসভা থেকে ছত্তীসগঢ়ে সেনা মৃত্যুর জন্য কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে আক্রমণ করেন তিনি। তৃণমূল সুপ্রিমো বললেন, “জওয়ান মারা যাচ্ছে আর বাংলা দখলের জন্য দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলায় এসে বসে আছেন। বাংলার দুটো গদ্দার বিজেপিকে দিয়ে রাজ্য শাসন করাবে? আমি থাকতে সেটা হবে না। বিজেপিকে ভোট হারিয়ে মাঠের বাইরে বার করে দিন।”

এদিন তিনি আরও বলেন, “বাবুল সুপ্রিয় একদিন বলেছিল সারদা হচ্ছে রোজভ্যালির প্রথম রোজ। লকেট তো সারদার গলার লকেট হয়ে ঘুরে বেড়ায়। এদের বিরুদ্ধে কোনও কেস নেই, এরা এমপি হবে, এমএলএ হবে।”

এদিকে এই কথা শুনে পালটা লকেট চট্টোপাধ্যায় বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মাথা খারাপ হয়ে গেছে। তাই তিনি একজন মহিলা হয়ে একজন মহিলাকে এসব বলছেন। তিনি এখনও মুখ্যমন্ত্রী। তাই তাঁর নামে এর বেশি কিছু বলবো না। আসলে উনি হেরে যাবেন। তাই তিনি এসব বলছেন।”

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আরও বলেন, “বিজেপির প্রার্থী নেই বলে সাংসদকে এনে দাঁড় করাতে হয়েছে। ওরা সব টাকার জন্য বিজেপি করছে। বিজেপির কাজ তো টাকা ছড়ানো। হোস পাইপ দিয়ে যেমন জল ছড়ায় সেভাবে টাকা ছড়াচ্ছে।”

এরপর তিনি সপ্তগ্রামের প্রার্থী তপন দাশগুপ্তর জন্য ভোট চাইতে গিয়ে বলেন, “তপনকে ভুল বুঝবেন না। ও একটা ভুল করে ফেলেছে। আমি ওকে বুঝিয়ে দিয়েছি, কাউন্সেলিং করিয়েছি। আর ভুল করবে না। আপনারা ওকে ক্ষমা করে ভোটটা দিন। আমি তো জিতবই, কিন্তু সঙ্গে তপন এবং অন্য প্রার্থীরা জিতলে তবেই তো আমাদের শক্তি বাড়বে।”

আট দফার ভোট প্রসঙ্গে তিনি বলেন,“এই অবস্থায় কি ভোটটা ৩, ৪ দফায় করে নেওয়াই উচিত ছিল না? কিন্তু ৮ দফায় ভোট ঘোষণা করার পর এখন যদি করোনা পরিস্থিতি দেখিয়ে ভোট বন্ধ করার চেষ্টা করা হয়, তাহলে কিন্তু চলবে না। খেলা যখন শুরু হয়েছে তখন শেষ করতে হবে। তবে নির্বাচন যখন হচ্ছে, তখন তা নির্ধারিত সূচি মেনেই শেষ করতে হবে।”

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: