25 C
Kolkata
Sunday, September 25, 2022
বাড়িরাজনীতিদেশদ্রোহী "কানহাইয়া কুমার"

দেশদ্রোহী “কানহাইয়া কুমার”

চার বছর আগে, অর্থাত, 2016 সালের ফেব্রুয়ারি মাস, ভারতীয় রাজনীতি তে উত্থান হয়, এক বামপন্থী ছাত্র নেতার..

যার নাম, “কানহাইয়া কুমার.”

যে দিল্লির “জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের” এর ক্যাম্পাস এ দাঁড়িয়ে চিৎকার করে ঘোষণা করেছিলো তার দাবী ..

ভারতের আভ্যন্তরীণ সম্পূর্ণ স্বাধীনতা দিতে হবে, প্রতিটা মানুষকে..

যে বক্তব্য, বা স্লোগান “আজাদী”, আজ, যে কোনও, বামপন্থী ছাত্র আন্দোলনের মূল স্লোগান..

চার বছর আগে, সেই স্লোগান কে ঘিরে, দেশদ্রোহী তকমা পেয়েছিলেন, “কানহাইয়া কুমার.”..

সেদিন তাকে, গ্রেফতার করেছিলেন, দিল্লী পুলিশ..

কিন্তু, সেদিন তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন, দিল্লীর তৎকালীন, ও বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী..

যে রাজ্যের ঘটনা, সেই রাজ্যের, রাজ্য সরকারের, সমর্থন, না পেলে, কখনো, কোনো অপরাধীর বিরুদ্ধে, “দেশদ্রোহী” মামলা চালাতে পারে না, কেন্দ্রীয় সরকার..

তাই সেদিন, দিল্লী সরকারের সমর্থনে, ছাড়া পেয়ে যান, “কানহাইয়া কুমার.”…

শুরু হয়, ভারতীয় রাজনীতির “কানহাইয়া কুমার.” এর আদর্শ..

কিন্তু, চার বছর পর, সম্পূর্ণ ঘুরে যায়, সেই দিল্লী সরকার..

2020 এর ফেব্রুয়ারি এর দিল্লীর অশান্তির জেরে, সেই “কানহাইয়া কুমার.” এর বিরুদ্ধে, আবার “দেশদ্রোহী” মামলা শুরু করতে, কেন্দ্রীয় সরকার কে সমর্থন করে, দিল্লী সরকার…

ঘুরে যায় পরিস্থিতি…

“কানহাইয়া কুমার.” ধন্যবাদ জানিয়েছেন, দিল্লী সরকার কে… “কানহাইয়া কুমার.” এর বক্তব্য, “বিহার রাজ্যের আগামী নির্বাচন এ, যাতে সে বিরোধী মুখ না হতে পারে, ও নির্বাচনে, নিজে লড়তে যাতে না পারে, তাই এই যুদ্ধকালীন ব্যবস্থা, তার বিরুদ্ধে”…

এবার দেখার, আগামী দিনে, যমুনা এর জল, কোন খাতে বয়???

আপনার মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

%d bloggers like this: